• বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৯:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
চকরিয়ায় তথ্য আপা দের সহায়তায় অস্বচ্ছল দরিদ্র ১৬০ পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার সামগ্রী বিতরণ যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দীন কবির পিয়াস এর পক্ষ থেকে শহরে বিভিন্ন জায়গায় ইফতার বিতরণ  যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দীন কবির পিয়াস এর পক্ষ থেকে শহরে বিভিন্ন জায়গায় ইফতার বিতরণ   ১২দিন বন্ধ থাকবে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি চিরতরে শেষ অবুঝ দুই সন্তানের পিতা ডাকা! আনোয়ারায় রায়পুর ইউনিয়নের প্রধানমন্ত্রী উপহার পেলেন ৫’শ পরিবার ব্রীজ ভেঙ্গে যাওয়ায় দূর্ভোগে পড়েছে বিভিন্ন শ্রেণীর ব্যবসায়ীরা সিংড়ায় কলেজ ছাত্রীর লাশ উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশনকৈল পৌর মার্কেটে মাছ বাজারের ঢালাই কাজের উদ্বোধন জয়নাল আবেদীন হত্যাকান্ড মগনামায় ঘেরের বাসায় আগুন, আ’লীগের সভাপতির বাড়িসহ ৩ টি বাড়ি ভাংচুর বন্ধ হতে পারে বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্স

আনোয়ারায় ফসলি জমি বাঁচাতে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

ফরহাদুল ইসলাম,আনোয়ারা প্রতিনিধি / ১৭ Time View
Update : বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১

চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় তিন ফসলি জমির অধিকগ্রহণ বন্ধের দাবিতে মানববনন্ধন করেছে বারশত ইউনিয়ন সর্বস্তররের জনসাধারণ। ইতি মধ্যে তাদের বাপ-দাদা পূর্ব পুরুষের কৃষি জমি অধিগ্রহণ করে সরকারী বেসরকারি ভাবে গড়ে উঠছে শিল্প, কল-কারখানা। কৃষি জমির পরিবর্তন করে অকৃষি খাতে ব্যবহারের ফলে কৃষকদের পরিবারে নেমে এসেছে হতাশা। কৃষি জমি গিলে খাচ্ছে সরকারি বেসরকারি কলকারখানা।
এছাড়াও নতুন করে জমি অধিগ্রহণ না করতে তিন ফসলি কৃষি জমি রক্ষায় মানববন্ধন করেছে কৃষক ও স্থানীয়রা ।

সরকারের কাছে তাদের দাবি তিন ফসলি জমিতে কলকারখানা চাইনা-খাবার চাই ফসলী জমির বিকল্প নাই’।‘ফসলী জমি ধ্বংস করে কলকারখানা নির্মাণের অশুভ চক্রান্ত রুখে দাঁড়াও জনগণ’, নয় খাবার চাই, ফসলী জমির বিকল্প নাই’,‘বাপ-দাদার তিন ফসলী জমি লুটে নিতে দেওয়া হবে না। ফেস্টুনে তুলে ধরে ফসলী জমিতে মানববন্ধন করেন তারা।

বুধবার(২১ এপ্রিল) সকালে উপজেলার বারশত ইউনিয়নের দুধকুমড়া এলাকায় শত শত মানুষ এ মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে।
মানববন্ধনে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ ফজলুল করিম চৌধুরী।লিখিত বক্তব্যে বলেন,আসসালামু আলাইকুম উপস্থিত সাংবাদিক ভাইগণ আপনারা জানেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা কৃষি জমি অধিগ্রহণ করা হবে না।ইতিপূর্বে অত্র এলাকার একাধিক জমি সিইউএফএল সারকারখানা ও কর্ণফুলী টানেল এর জন্য ভূমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে।এই তিন ফসলি কৃষি জমি চাষাবাদ করে মানুষ জীবিকা নির্বাহ করেন।ইতিপূর্বে কয়লা বিদ্যুৎ নির্মানের উদ্দ্যোগ নিলে আমাদের প্রাণপ্রিয় অভিভাবক প্রয়াত জনাব আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু ভাইয়ের হস্তক্ষেপে তা বন্ধ হয়ে যায়।বর্তমানে বিদ্যুৎ সার্বষ্টেশন নির্মানের জন্য আই.এফ.আই.সি নামক সংস্থা জরিপ করলে তৎক্ষানিক এলাকার জনগণ উক্ত তিন ফসলি কৃষি জমি অধিগ্রহণের বিরোধিতা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, ভূমিমন্ত্রী,জেলা প্রশাসক এবং ইউএনও নিকট স্মারক লিপি প্রদান করে।উক্ত বিষয়টি সম্পন্ন অবজ্ঞ করে অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখে।উক্ত মতে পি.জি.সি.বি কোম্পানি অত্র ভূমি অধিগ্রহণের লক্ষ্যে প্রত্যায়ন পত্র দেওয়ার জন্য উপজেলা প্রশাসনকে চিঠি ইস্যু করেন।উক্ত বিষয়টি জানার পর গ্রামবাসির ক্ষোভ, আতংক এবং হতাশা সৃষ্টি হয়েছে।

এলাকাবাসীর সুস্পষ্ট বক্তব্য হচ্ছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা তিন ফসলি কৃষি জমি অধিগ্রহণ করা হবে না মর্মে উক্ত বিষয়ের সাথে একমত পোষন করেন।ইহা ছাড়া প্রস্তাবিত কৃষি জমির বিপরীতে পশ্চিম তুলাতলী,রাঙ্গাদিয়া,মাঝেরচর,ফুলতলী মৌজার একাধিক খাস জমি এবং অনাবাদি জমি পরিত্যক্ত অবস্থানে আছে।

এমতাবস্থায় প্রস্তাবিত দুধকুমড়া মৌজার তিন ফসলি কৃষি জমি অধিগ্রহণ না করে কৃষি জমির বিপরীতে পশ্চিম তুলাতলী,রাঙ্গাদিয়া,মাঝের চর,ফুলতলী মৌজার একাধিক খাস ও অনাবাধি জমি অধিগ্রহণ করা যাইতে পারে।উক্ত বিষয়টি আপনাদের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও ভূমিমন্ত্রী এবং যথাযর্থ কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনায় এলাকাবাসির পক্ষে আজকের এই মানববন্ধন।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বারশত ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুর রহমান, ১নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নুর মোহাম্মাদ, এ এ কাইয়ুম, মোহাম্মদ শাহজাহান, মোহাম্মদ আবু তালেব,মোহাম্মদ মিয়া, মাসুদ চৌধুরী, আনিসুর রহমান, জালাল আহমেদ, সিবিএ নেতা আবুল বশরসহ ইউনিয়নের জনসাধারণ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category