• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
চকরিয়ায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ যুবক নিহত মোংলায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষার লক্ষ্যে সম্প্রীতির বন্ধন ও সমাবেশ সিংড়ায় ইঁদুর নিধন অভিযান শুরু চকরিয়ায় অন্বেষণ সোস্যাল এন্ড ব্লাড ডোনার’স সোসাইটি’র বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন সম্পন্ন ঠাকুরগাঁও রানীশংকৈলে শেখ রাসেলের জন্ম দিবস পালিত পেকুয়ায় পুঁজামন্ডপ হামলার ঘটনায় তিন মামলায় আসামি ১-হাজার, গ্রেপ্তার-১৩ সিংড়ায় শেখ রাসেলের ৫৮ তম জন্মদিন পালন চকরিয়া পশ্চিম বড় ভেওলায় বহিষ্কৃত বিদ্রোহী প্রার্থী নৌকা প্রতীক পেতে মরিয়া চকরিয়া ও পেকুয়ায় ১৬ ইউনিয়নে নৌকা চাইলেন ৭০ জন পেকুয়ায় বিদ্যুতষ্পৃষ্টে দর্জির মৃত্যু

আমরা কীভাবে সিয়াম বা রোজাকে গ্রহণ করেছি!

বিবিসি একাত্তর ডেস্ক / ১১৫ Time View
Update : শনিবার, ৮ মে, ২০২১

মোঃ ফোরকান উদ্দিন

‘সিয়াম’এর আভিধানিক অর্থ হচ্ছে বিরত থাকা।সুবহে সাদেক থেকে সুর্যাস্ত পর্যন্ত যাবতীয় খাওয়া দাওয়া ও ইসলামি শরিয়তে নিষিদ্ধ কাজ থেকে সম্পুর্ন বিরত থাকার নামই সিয়াম বা রোজা।পক্ষান্তরে রোজা একটি আবশ্যক ফরজ ইবাদাত, না মানলে কবিরাহ গোনাহ হবে অস্বীকার করলে ঈমান চলে যাবে। আসলে আমরা কি সিয়াম বা রোজাকে সেই ভাবে গ্রহন করেছি? বা গ্রহন করতে পেরেছি?আমাদের বেশীর ভাগ মানুষের ধারণা সকাল থেকে না খেয়ে বিকালে খাওয়ার নাম রোজা।আসলে রোজা কি তাই? নিশ্চয় নয়।আমরা রোজা বা সিয়ামের মুল উদ্দেশ্য কে সম্পুর্ন বাদ দিয়ে সারাদিন উপোস থেকে নিজের ইচ্ছে মতো নিজের নফ্স কে অনিয়ন্ত্রিত করে মনের মতো নানা রকম অবৈধ সুযোগ সুবিধা ভোগ করে দিন পার করে মনের আত্মতুষ্টির ঢেকুর তুলে মনে করি আমার রোজা আদায় হয়ে গেছে।আপসোস এসব গোমরাহিতে রত বান্দাদের জন্য।যেমন আমি একজন ব্যবসায়ী আমার কাজ হচ্ছে হালাল ব্যবসার মাধ্যমে রোজী রোজগার করে আমার পারবারিক চাহিদা মিটিয়ে আল্লাহর ইবাদত করা।কেননা মহান আল্লাহ মানুষকে দুনিয়ায় পাঠিয়েছেন এক মাত্র তারই এবাদত করার জন্য।আর ইবাদতের জন্য আল্লাহতায়ালা যে হায়াতঠুকুন দিয়েছেন সেই সময় টুকু সুস্থ ও সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকা দরকার।এই বেঁচে থাকার জন্যই মানুষ ব্যবসা চাকরী শ্রমীক কুলি মজুরী করে যাচ্ছেন।মুল উদ্দেশ্য হচ্ছে ইবাদত আর যাবতীয় কাজ কর্ম হচ্ছে ইবাদাতের জন্য বেঁচে থাকার জন্য।কোন মানুষ সারাজীবন ব্যবসা বানিজ্য চাকরী ইত্যাদিতে মশগুল থেকে অনেক রোজগার বা অঠেল সম্পদের মালিক হলো কিন্ত আল্লাহ কে সন্তুষ্ট বা তার ইবাদত বন্দেগিতে গাফেল ছিলো তার সমস্ত অর্জন ই ব্যর্থ।আর ইবাদত কবুল হওয়ার প্রথম শর্তই হচ্ছে হালাল রোজগার। আপনি রোজা রাখেন,কিন্ত আপনি যে সেহরি বা ইফতার পান করেন সেই ইনকাম অবৈধ ওঅসাধু উপায়ে রোজগার করেছেন কিনা! যদি আপনি অবৈধ ইনকাম থেকে বিরত থাকেননি তাহলে আপনার সিয়াম বা রোজার হক বা শর্ত আদায় হবে না। অর্থাৎ আপনি সঠিক সিয়াম (বিরত) পালন করেননি,সুতারং আপনার রোজা হয়নি। অনুরূপ আপনি চাকরি ব্যবসা বানিজ্যে সর্বক্ষেত্রে মানুষকে ঠকিয়ে সুদ ঘোষ অবৈধ ইনকাম করে সিয়াম পালন করছেন,অনেকে আবার রোজা উপলক্ষে মানুষের দৈনন্দিন নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের ইচ্ছে মাপিক দাম বাড়িয়ে বা অতি মুনাফা করতঃবা রোজার বকশিসের নামে জবরদস্তি করে মানুষের ক্ষতি করে সিয়াম পালন করেছেন,সিয়ামের পরিভাষায় আপনি আদোও রোজা পালনকারী নন।শুধু রোজা নয় যাবতীয় ইবাদত ও আপনার সহি সুদ্ধ হয়নি।আল্লাহর কাছে এ ধরনের ইবাদাত গ্রহন যোগ্য নয়।এভাবে প্রতিবেশীর প্রতি অসাদাচারন প্রতিবেশীর হক অনাদায় অর্থাত সব ধরনের আর্থিক মানসিক শারীরিক যাবতীয় জুলুম অত্যাচার থেকে বিরত না থেকে অব্যাহতভাবে মানুষের ক্ষতিসাধন করে আপনি যতই রোজা রাখেন বা ফরজ ইবাদত পালন করেন মহান আল্লাহর নিকট এধরণের ইবাদত কবুল হবে না।আসুন আমরা পরিপূর্ণ ইসলামে দাখিল হয়।সুবিধা জনক ইসলাম,সুবিধাজনক ইবাদত,সুবিধাজনক মুসলমান না হয়ে আল্লাহ যেন মৃত্যু না দেন এই কামনা করি।অন্যতায় সব দুনিয়াবী অর্জন ইহকাল ও পরকালের জন্য মারাত্মক অসুবিধার কারন হয়ে দাঁড়াবে।পবিত্র কোরআনের৷ ভাষায়-“হে মুমিনগণ তোমাদের উপর রোজা ফরজ করা হয়েছে।যেমন ফরজ করা হয়েছিল তোমাদের পুর্ববর্তীদের উপর। যেন তোমরা তাক্বওয়া (আল্লাহ ভীতি)অর্জন করো”(সুরা আল বাক্বারা,আয়াত নম্বর ১৮৩) সর্বক্ষেত্রে আমাদের আল্লাহ ভীতি অর্জন ছাড়া ইহকাল ও পরকালে সফলকাম সম্ভব নয়। আমীন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category