• বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
পেকুয়ায় দুই হাজতি মেম্বার নির্বাচিত এবারে দুই নারীসহ আমিরাত থেকে ২৬ জন প্রবাসী সিআইপির মর্যাদা পেয়েছেন সাবেক সাংসদ শাহাদাত হোসেন চৌধুরীর জানাজা সম্পন্ন, পারিবারিক কবরস্থানে দাফন কবি হিমেল বরকত’র সাহিত্যে বিপন্ন মানুষের কন্ঠস্বর ঠাঁই পেয়েছে নির্বাচনী সহিংসতা: পেকুয়ায় আ’লীগ নেতার বসতবাড়ি ভাংচুর চকোবি হোস্টেলের সমাপনি ক্লাস আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পন্ন ঠাকুরগাঁও নির্বাচন সহিংসতায় বিজিবি’র গুলিতে নিহত ৩ আহত ৫ ঠাকুরগাঁওয়ে তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে ১৪টি নৌকা ৪টি সতন্ত্র প্রার্থীর জয়লাভ সাবেক সাংসদ এডভোকেট শাহাদাত হোসেন চৌধুরী আর নেই টেকনাফ সমিতি ইউএই’র বার্ষিক কর্মশালা ও মতবিনিময় সভা’২১ অনুষ্ঠিত

গুলিবিদ্ধ সোহেলসহ চারজনকে ভেতরে রেখে বাইরে থেকে তালা দেয়া হয়

কুমিল্লা সংবাদদাতা / ৩৮ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২১

কুমিল্লা নগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর সৈয়দ মো: সোহেলকে একাধিক গুলিতে মৃত্যু নিশ্চিত করে দুর্বৃত্তরা। পরে অফিসের ভেতরে গুলিবিদ্ধ সোহেলসহ চারজনকে রেখে দুর্বৃত্তরা বাইরে থেকে শার্টারে তালা লাগিয়ে দেয়। স্থানীয়রা তালা ভেঙে তাদের উদ্ধার করে।

মঙ্গলবার এমন বর্ণনা দেন ওই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ মো: রাসেল। রাসেলের বাড়ি নগরীর দ্বিতীয় মুরাদপুর।

কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রাসেল জানান, গোলাগুলির ঘটনা শুনে তিনি এগিয়ে যান। তিনি দেখেন কাউন্সিলর সোহেলকে অফিসে ঢুকে গুলি করে বাইরে থেকে তালা লাগিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। এ সময় তারা মুহুর্মুহু গুলি ও ককটেল ছোড়ে। পরে তিনি এগিয়ে গেলে তাকেও গুলি করে। তার হাঁটুর নিচে বিপরীতে গুলি লাগে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পাথুরিয়া পাড়ার জগন্নাথ মন্দির এলাকার তিন রাস্তার মাথায় অবস্থিত দোকানঘরটিতে প্রথমে কাউন্সিলরকে সালাম দিয়ে প্রবেশ করে দুর্বৃত্তরা। তারা সবাই কালো পোশাক ও মুখোশ পরা ছিল। তখন আসরের নামাজের জামাত হচ্ছিল। প্রথমদিকে র‌্যাবের লোকজন মনে করে তারা কোনো প্রতিরোধের চেষ্টা করেননি। হঠাৎ গুলির শব্দ।

জানা যায়, ওই গুলিটি করা হয় কাউন্সিলর সোহেলের মাথায়। এ সময় সহযোগী বাদল বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে তাকেও গুলি করা হয়। বাদল মারা যাওয়ার ভান করে মেঝেতে লুটিয়ে পড়েন। পাশে থাকা হরিপদ ও আরো একজনকেও গুলি করে দুর্বৃত্তরা। গোলাগুলি শেষে মৃত্যু নিশ্চিত করতে বাইরে থেকে শাটার বন্ধ করে দেয়া হয়। তিন রাস্তার তিন দিকে তিনজন ফাঁকা গুলি ছুঁড়তে থাকে। পরিস্থিতি ভয়াবহ চিন্তা করে স্থানীয়রা ইটপাটকেল ছুঁড়ে প্রতিরোধের চেষ্টা করে। এভাবে পঁয়তাল্লিশ মিনিট গুলি, ককটেল বিস্ফোরণ ও স্থানীয়দের নিরস্ত্র প্রতিরোধের চেষ্টা চলতে থাকে। এ সময় ইটপাটকেল ছুঁড়ে প্রতিরোধ করতে যাওয়া আরো তিনজনকেও গুলি করে হামলাকারীরা। হামলাকারীরা বউবাজার এলাকার দিকে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তালা ভেঙে কাউন্সিলর সোহেলসহ চারজনকে উদ্ধার করেন।

প্রসঙ্গত, সোমবার নগরীর পাথুরিয়া পাড়া এলাকায় কাউন্সিলর কার্যালয়ে ঢুকে গুলি করে দুর্বৃত্তরা। এতে কাউন্সিলর সৈয়দ মোহাম্মদ সোহেল ও তার সহযোগী হরিপদ সাহা মারা যান। গুলিবিদ্ধ হন আরো পাঁচজন।

আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলা বারুদ উদ্ধার
কুমিল্লায় প্রকাশ্য দিবালোকে কাউন্সিলর ও তার সহযোগীকে হত্যার ঘটনার পর আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলা বারুদ উদ্ধার করে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সোহান সরকার বলেন, আমরা ধারণা করছি সোমবারের ঘটনায় এ আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদগুলো ব্যবহৃত হয়েছে। তবুও আমরা ব্যাপক বিশ্লেষণ করবো।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার বিকেল ৩টায় কুমিল্লা শহরের ১৬ নং ওয়ার্ড, সংরাইশ, বড় পুকুর পাড়, ডক্টর রহিমের গলির বেলাল মিয়ার তাজীহা লজ বাসার বাউন্ডারি ওয়ালের পাশে বাড়ি ও বাউন্ডারি ওয়ালের মাঝখানে তিনটি ব্যাগ দেখতে পেয়ে তারা পুলিশকে জানায়। পুলিশ ব্যাগ তল্লাশি করে দুইটি এলজি, ১টি পাইপগান, আনুমানিক ১৫ থেকে ২০ টি অবিস্ফোরিত বোমা সদৃশ বস্তু, তিনটি কালো ব্যাগ, দুইটি কালো জামা ও ১২ রাউন্ড তাজা বুলেট উদ্ধার করে।

পুলিশের ধারণা কিলিং মিশনের দলের ব্যাগ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে হাফ কিলোমিটার উত্তর থেকে এগুলো জব্দ করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category