• রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম
তত্ত্বাবায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই : তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী সম্প্রীতির বাগেরহাট গড়ার প্রত্যয় নিয়ে আন্ত:ধর্মীয় সংলাপ অনুষ্ঠিত মালুমঘাটে খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন, হুমকিমূখে জনবসতি ডেঙ্গু প্রতিরোধে আওয়ামীলীগ নেতা বোরহান উদ্দীন চৌধুরী’র মশারি বিতরণ আনোয়ারায় ইয়াবাসহ আটক ৪ ঠাকুরগাঁও রাণীশংকৈলে কাশিপুরে কৃষকলীগের আহ্বায়ক কমিটির সভা সক্রিয় চুর সিন্ডিকেটঃ আতঙ্কে খুটাখালীবাসী চকরিয়া পৌরসভায় শান্তিপূর্ণ নির্বাচন নিশ্চিতে প্রস্তুত প্রশাসন গ্রহণযোগ্য পন্থায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে : ওবায়দুল কাদের গোপনে বা প্রকাশ্যে নৌকার বিরোধীতাকারীদের আওয়ামীলীগে স্থান হবে না- সিরাজুল মোস্তফা

চকরিয়ায় অভিনব কায়দায় জাল টাকা দিয়ে মাংস বিক্রেতার টাকা ছিনতাই

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি / ৮৪ Time View
Update : রবিবার, ৮ নভেম্বর, ২০২০

চকরিয়ায় অভিনব কায়দায় জাল টাকা দিয়ে মাংস বিক্রেতার ২০হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সিকদারপাড়া গ্রামে গত ৭নভেম্বর দুপুরে ঘটেছে এ ঘটনা। ছিনতাই ও প্রতারণার শিকার নুর আহমদ ওই এলাকার মৃত আবদুচ ছোবহানের পুত্র। ঘটনার তিনি একইদিন রাতে অজ্ঞাতনামা দুইজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।
অভিযোগে জানান, লক্ষ্যারচর জিদ্দাবাজার এলাকায় ৭নভেম্বর সকাল ১০টার দিকে একটি মহিষ গরু জবাই করে সাধারণ মানুষের কাছে খুচরা ও পাইকারীতে মাংস বিক্রি করেন। মাংস বিক্রির নগদ ২৬ হাজার টাকা নিয়ে বাকিতে বিক্রিত পাইকারী ক্রেতাদের কাছ থেকে টাকা উত্তোলনের জন্য যাওয়ার পথে অজ্ঞাত পরিচয়ের দুইজন লোক মোটর সাইকেল যোগে এসে বাড়ির কাজের মেস্ত্রীর জন্য খুচরা ভাংতি টাকা লাগতেছে উল্লেখ করে ২০টি এক হাজার টাকার নোট দিয়ে মাংস বিক্রির খুচরা ২০হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে টাকা গুলো অন্যান্য শেয়ারদার ও ব্যবসায়ীদের দেখালো তারা উক্ত হাজারী নোট ভেজাল বলে জানান। এরপর থেকে মোটর সাইকেল নিয়ে আসা অজ্ঞাত পরিচয়ের জাল নোট ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন স্থানীয় সন্ধান চেয়ে না পেয়ে বিষয়টি থানার অফিসার ইনচার্জকে অবহিত করেন। এরপর ব্যবসায়ী নুর আহমদ বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন এবং দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তার কাছে উক্ত ২০টি এক হাজার টাকার জাল নোট হস্তান্তর করন।
চকরিয়া থানার ওসি শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ঘটনার বিষয়ে মাংস ব্যবসায়ী নুর আহমদ বাদী হয়ে দেয়া অভিযোগটি পেয়েছেন। তা তদন্ত করে দেখার জন্য এক উপপরিদর্শককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এছাড়াও জাল নোট গুলো জব্দ তালিকায় রাখা হয়েছে। যখনই প্রকৃত সন্ধান পাওয়া যাবে, তখনই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category