• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০২:১৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ফুলবাড়ীতে খেলার মাঠ দখল মুক্ত করার দাবিতে এলাকাবাসীর মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ ঠাকুরগাঁও রাণীশংকৈলে নজরুল জয়ন্তী পালিত বেনাপোলে দুই যুবকের পায়ুপথ থেকে মিললো ৩টি সোনার বার পেকুয়ায় নিহত মুক্তিযোদ্ধা কালু মিয়ার সম্পত্তির ভাগ পাননি এতিম নাতি বেলাল মাঝি! ঈদের দিনে যুবক হত্যা চেষ্টার মামলায় দুই আসামী র‌্যাবের জালে বন্দি ছাত্রলীগকে কাপুরুষ সন্ত্রাসী বানিয়েছে আ’লীগ : রিজভী যুক্তরাষ্ট্রে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গুলি, ২১ ছাত্র-শিক্ষক নিহত প্রথম সেশনে ২ উইকেট, ম্যাথুজ-ধনাঞ্জয়ে এগিয়ে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা ইভিএম বিশেষজ্ঞদের সাথে বৈঠকে ইসি রাঙ্গামাটিকে হারিয়ে ফাইনালে চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ

চকরিয়ায় নিহত নোবেলের পরিবর্তে চেয়ারম্যান পদে লড়বেন স্ত্রী মুন্না

নিজস্ব প্রতিবেদক,চকরিয়া / ১৯৫ Time View
Update : বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১

প্রকাশ্য দিবালোকে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হওয়া আ’লীগ নেতা নাছির উদ্দীন সিকদার নোবেল এর পরিবর্তে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে লড়বেন বলে প্রার্থীতা ঘোষণা করেন, নিহতের স্ত্রী ফারহানা আফরিন মুন্না।

নিহত নোবেল এর স্ত্রী মুন্না আসন্ন ইউপি নির্বাচনের পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়ন থেকে প্রথম নারী চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নিজেকে প্রার্থীতা ঘোষণা করেছেন।এছাড়া তিনি একজন সুশিক্ষিত নারী।বর্তমানে দুই সন্তানের জননী এবং বিধবা নারী।উল্লেখ্য তার স্বামী নোবেলকে নির্বাচনের প্রতিহিংসার রোষানালে ফেলে,তার জয়-জয়কার ভাব থামিয়ে দিতে জমি সংক্রান্ত জের ধরে গুলি করে হত্যা করেছিল সন্ত্রাসীরা।এতেও তার স্বপ্নলিলার কথা মনে রেখে স্বামীর স্বপ্ন পূরণতায় স্ত্রী মুন্না চেয়ারম্যান পদে লড়বেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।এই ঘোষণায় আবারো অত্র ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদের নির্বাচন প্রার্থীর মনে কম্প সৃষ্টি হয়েছে।

স্বামী হারা ফারহানা আফরিন মুন্না বলেন, আমার স্বামী নাছির উদ্দিন নোবেলকে হত্যা করেছে স্বার্থলোভী, সন্ত্রাসীরা।যারা আমার স্বামীকে হত্যা করে জীবনের গতি থামিয়ে দিলেও,আমি তার ওয়ারীশ হিসেবে তার স্বপ্নের গতি যেন থামিয়ে না যায়।সে লক্ষে সাধারণ মানুষ,আপামর জনগণের হৃদয় থেকে নোবেলের নামকে জাগ্রত রাখতে,আমি চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করবো। কিন্তু শহীদ নোবেলকে জনগণ ভুলেনি, ভুলবে না, তাকে ভুলে যাওয়ার মতো মানুষ তিনি ছিলেন না।তার জীবদ্দশায় তিনি সব সময় সাধারণ মানুষের পাশে ছিলেন।

তাই আমার শহীদ স্বামী নোবেল জনগণের সেবক,ন্যায়-পরায়ন বিচার হতে চেয়েছিলেন।তারই ধারাবাহিকতায় তিনি এলাকায় প্রচার প্রচারণা চালিয়ে জনগণের আস্থা, ভালোবাসাসিক্ত একজন ছিলেন।আমার স্বামী নাছির উদ্দিন নোবেল ছিলেন চট্টগ্রাম ওমরগণি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক সমাজ কল্যাণ সম্পাদক, রাজপথ কাপানো সাবেক ছাত্র লীগ নেতা, চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগ নেতা ও পূর্ব বড়ভেওলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য,সমাজ সেবী সংপঠন আলোর সভাপতি, মুজিব আর্দশের লড়াকু সৈনিক। নোবেল বহু শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে জড়িত ছিলেন। নিরবে সরবে মানুষের উপকার করে গেছেন। কারও ক্ষতি তিনি কোনদিন করেনি। একজন আর্দশিক মানুষ ছিলেন বলে আজ তাকে হত্যা করে আমাকে করেছে বিধবা,তার দুই সন্তানকে করেছে পিতা হারা এতিম। নোবেল জনগণের আস্হা অর্জনে এলাকাতে দিন-দিন যখন জনপ্রিয়তা বাড়াই ছিল আমার স্বামীর জন্য কাল।
তার জনপ্রিয়তা অর্জনের মুহুর্তগুলো সহ্য করতে পারেনি সন্ত্রাসী বাহিনী, খুনি চক্ররা। অত্যন্ত সুপরিকল্পিত ভাবে তাকে গত ১৭ আগস্ট দিনদুপুরে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করেছিল।বিধায় পূর্ব বড় ভেওলাবাসীর স্বপ্ন পূরণের লক্ষে আমি শহীদ নোবেল পরিবর্তে স্বপ্নদ্রষ্টার হালটি ধরে,জনগণের সেবক হতে চাই।

তিনি অশ্রু মাখাকন্ঠে বলেন,আমি চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার পিছনে কেবল আমার ইচ্ছা,প্রতিশোধ নয়।জনগণের জনমত,ভালোবাসা,উৎসাহ,অনুপ্রেরণায় মূল শক্তি।আল্লাহ যদি আমাকে ভোটের মাঠে জয় করে,কামিয়াব করে,আমি অকুতোভয়ে বলছি,এই ইউনিয়ন হবে,সন্ত্রাস,মাদক,দূর্নীতিমুক্ত এলাকা।কোন সহিংসতাকারী লোককে এলাকায় প্রশ্রয় পাবেনা।যাতে করে আমার মত কেউ যেন বিধবা না হয়,আমার সন্তানদের মত কেউ যেন পিতাহারা না হয়,এছাড়া কেউ যেন সন্তানহারা আকুতিতে চিৎকার না করে।কারো জমি যেন অন্যায়ভাবে কেউ জবরদখল না করে।এমন সমাজ ব্যবস্হা বাস্তবায়নের আমার নির্বাচনী লক্ষে-উদ্দেশ্য।তাই আমি সবার দোয়া,সমর্থন,ভালোবাসা কামনা করছি। চাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category