• রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম

চকরিয়ায় পল্লী চিকিৎসকের হয়রানির অভিযোগ

মোঃ নিজাম উদ্দিন, চকরিয়া: / ৩৪৫ Time View
Update : শনিবার, ২৯ মে, ২০২১

নিজস্ব কোন চেম্বার নেই। লোকজন চিকিৎসা করতে বাড়িতে আসেন অথবা ফোন করে রোগীর বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। রোগী দেখে তিনি ব্যবস্থাপত্র ছাড়া নিজেই ঔষুধ বিক্রি করেন। দামও যত বলবে টাকাও তাই দিতে হবে। কোনপ্রকার বিরোধ যদি থাকে তিনি ফোন করলেও আর যাবেন না। বেশি বিরক্ত করলে হামলাও চালান।
চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী (২নং ওয়ার্ড) মধ্যম মেদাকচ্ছপিয়া এলাকার বাসিন্দা মৃত হাবিব মতিনের ছেলে কথিত ডাক্তার বোরহান উদ্দিনের বিরুদ্ধে রয়েছে এসব অভিযোগ। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তিনি রাবেতা থেকে স্বল্পকালীন একটি কোর্স নিয়ে গ্রামের অলিগলিতে চিকিৎসা ও ঔষুধ বিক্রি শুরু করেন। বর্তমানে অঢেল সম্পদের মালিক। এ কথিত ডাক্তারের বিরুদ্ধে রয়েছে সাধারণ মানুষের বিভিন্ন অভিযোগ। কেউ প্রতিবাদ করলে দলেবলে হামলাও চালান তিনি।
কথিত ডাক্তার বোরহানের নিকটস্থ এলাকা ১নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা কোরবান আলীর ছেলে ফরিদুল আলম অভিযোগে বলেন, তার প্রচন্ড জ্বর। গত বৃহস্পতিবার বোরহান ডাক্তারকে ফোনে বাড়িতে আসতে অনুরোধ করেন। কিন্তু পূর্ব শত্রুতার আক্রোশে তিনি আসতে পারবে না জানান। বেশি অনুরোধ করায় উল্টো অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ ও হুমকি প্রদর্শন করে। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে এদিন দুপুরে কথিত ডাক্তার বোরহানের দলবল নিয়ে ফরিদুল আলমের চায়ের দোকানে এসে হামলা চালায়। এসময় তাকে প্রচন্ড মারধর করে ও দোকানের নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। পরে এলাকার লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা করান। পরদিন এ ঘটনায় তিনি চকরিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
খুটাখালী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার সেলিম উল্লাহ বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমাকে জানিয়েছে। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে সমাধানে বসার আগেই তারা থানায় অভিযোগ দিয়েছে জানতে পারি। চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক মোঃ জসিম উদ্দিন বলেন, ওসি স্যারের নির্দেশে ঘটনার সরেজমিনে তদন্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category