• শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১০:০৪ অপরাহ্ন

ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটের কার্যক্রমে নিষেধাজ্ঞা

ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি / ৫৫ Time View
Update : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটের কার্যক্রমে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন ঝিনাইদহ জেলা ম্যাজিষ্ট্রেটের আদালত।

ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটের সভাপতি এম.এ সামাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আদালত এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেন।

মঙ্গলবার আদালতের দেওয়া কার্যবিধির ১৪৪ ধারা মতে পুলিশ নোটিশ দিয়ে বিবাদী পক্ষের জিল্লুর রহমান,সিরাজুল ইসলাম মল্লিক,এটিএম ওহেদুজ্জামান,সাহিদুল এনাম পল্লব,মাহবুবুর রহমান, শাহিদুর রহমান সন্টু,ওমর আলী সোহাগ ও মেহেদী হাসান কনকসহ ১৪/১৫ জনকে রিপোর্টার্স ইউনিটের নামে কার্যক্রম পরিচালনা থেকে বিরত থাকার নির্দেশনা জারি করেন।এদিকে জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটের নির্বাচন নিয়ে চারিদিকে যখন সাজসাজ রব,প্রচার প্রচারণা যখন তুঙ্গে তখন এধরণের নিষেধাজ্ঞা সবাইকে হতভম্ব করেছে।

আদালতে দাখিল করা অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে,এম.এ সামাদ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটের সভাপতি।কিন্তু একই নামে আরেকটি সংগঠন খুলে বাদীর সুনাম ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন।একই নামে দুইটি সংগঠন করা অধিকার নেই বিবাদীগনের। গত ১৩ ফেব্রয়ারি বিবাদীগন বাদীর অফিসে গিয়ে হুমকী প্রদান করেন এবং খুন যখমের হুমকী দেন।

বাদী এম.এ সামাদ শান্তি শৃংখলা রক্ষায় শোকজ ও ১৪৪ ধারা জারির আর্জি করেন।

বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশ ফাড়ির এসআই খায়রুজ্জামান বলেন,ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটের সকল প্রকার কার্যক্রমে কার্যবিধির ১৪৪ ধারা মতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। আদালতের পরবর্তী ধার্য্য তারিখে বিবাদীগন হাজির হয়ে ব্যাখা প্রদান ও অভিযোগটি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটের নামে ঘর খুলে কার্যক্রম পরিচালনা করা যাবে না।তিনি বলেন কেও ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটের নামে ঘর খুলে কাযক্রম পরিচালনা করার চেষ্টা করলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category