• শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০১:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
বানিয়ারছড়ায় গুদী’র নামে চাঁদা আদায় বন্ধের নির্দেশ দেন ইউএনও কাকারায় ব্রীজ থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যূ মাতামুহুরী নদীতে পড়ে মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধার মৃত্যু ঠাকুরগাঁও রানীশংকৈলে ভুমিসেবা সপ্তাহ পালিত চকরিয়ায় নোবেল হত্যা মামলার আসামি আরিফকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ চকরিয়ায় অগ্নিকান্ডে ৩টি বসতঘর পুড়ে ছাই; পুড়েনি কুরআন শরীফ চকরিয়ায় বোরো ধানের বাম্পার ফলন; কৃষকরা সোনালী ধান ঘরে তুলে নিচ্ছে পেকুয়ায় মার্কেট থেকে সংযোগ বিচ্ছিন্ন, ফক্সি কাগজপত্রের তথ্য ফাঁস, বিদ্যুতের ম্যানেজারের বিরুদ্ধে জিডি চকরিয়ায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’র বালক-বালিকা ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত দূর্ঘটনা এড়াতে মহাসড়কের দুইপাশের শোলেডার ভরাট হবেতো?

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে আমন সমলয় চাষের শুভ উদ্বোধন করলেন ডিসি

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি / ৯০ Time View
Update : বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার কৃষিকাজে যন্ত্রের ব্যবহার বাড়িয়ে কৃষিকে আধুনিক ও লাভজনক করতে নিরলস কাজ করছে। তারই ধারাবাহিকতায় ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে “সমলয়” পদ্ধতিতে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ৫০ একর জমিতে রোপা আমন ধানের রোপণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।

বুধবার (২৮ জুলাই) রাণীশংকৈল উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে উপজেলার কাশিপুর এলাকায় এ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও রোপা আমন রোপন প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।

ঠাকুরগাঁও জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ আবু তাহের এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) প্রীতম সাহা,শাহারিয়ার আজম মুন্না চেয়ারম্যান উপজেলা পরিষদ রাণীশংকৈল, সঞ্জয় দেবনাথ কৃষি অফিসার রাণীশংকৈল এস এম জাহিদ ইকবাল অফিসার ইনচার্জ রাণীশংকৈল, আবদুর রউফ ৬নং কাশিপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রমুখ।

আলোচনা সভার পূর্বে জেলা প্রশাসক ও অন্য অতিথিবৃন্দ রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে মাঠে রোপা আমন ধান রোপণ করার পদ্ধতি পরিদর্শন করেন। সেখানে উপস্থিত কৃষকদের এই পদ্ধতিতে রোপা আমন সহ সকল ধানের চারা রোপনের জন্য উৎসাহিত করা হয়।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, এই দেশ ডিজিটাল বাংলাদেশ। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে তাই আমাদেরকেও কৃষিতে এগিয়ে যেতে হবে। রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে খুব দ্রুত অল্প সময়ে ধানের চারা রোপন করা সম্ভব। তাছাড়াও খরচ অনেক কম এবং লোকবল খুব কম প্রয়োজন। আর এই পদ্ধতিতে ধান রোপন করলে ধানের ফলনও অনেক ভালো হয়।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানায়, এ পদ্ধতিতে ধান চাষে কৃষকের যেমন সময়, শ্রম ও খরচ বাঁচবে তেমনি উৎপাদনও হবে বেশি। এতে লাভবান হবেন কৃষকরা। সমলয় পদ্ধতি হলো সবাই মিলে একসঙ্গে একই সময়ে একই জাতের ধান রোপণ করা।

এ পদ্ধতিতে ধান আবাদ করতে হলে চারা তৈরি করতে হবে ট্রেতে। ট্রেতে চারা উৎপাদনে জমির অপচয় কম হবে। চারা রোপণ করতে হবে রাইচ ট্রান্সপ্লান্টার মেশিন দিয়ে। এতে সব চারা একই গভীরতায় সমানভাবে লাগানো যায়। জমিতে সার ও আগাছা পরিষ্কার করতে হবে একই সময় একসঙ্গে। একসঙ্গে রোপণ করায় সব ধান পাকবেও একই সময়ে। তখন হারবেস্টার মেশিন দিয়ে একই সঙ্গে সব ধান কাটতে হবে। ধান মাড়াই ও বস্তাবন্দীও করতে হবে একসঙ্গে একই সময়ে।

এ পদ্ধতিতে প্রতি বিঘায় চারা তৈরি থেকে রোপণ পর্যন্ত সর্বোচ্চ খরচ হবে ৫০০ টাকা। আর পাকা ধান কম্বাইন্ড হারবেস্টার দিয়ে কেটে মাড়াই ও বস্তাবন্দী করতে এক বিঘা জমিতে খরচ হবে মাত্র ১ হাজার ২০০ টাকা।

কৃষি অফিসার সঞ্জয় দেবনাথ এ প্রতিবেদক কে বলেন, বাংলাদেশের একমাত্র ঠাকুরগাঁও জেলার কাশিপুরে এই সমলয়র মাধ্যমে চাষাবাদ হচ্ছে। আমরা ঠাকুরগাঁও বাসী ভাগ্যবান। তিনি বলেন এসব জমি এসময় ফেলে রাখা হতো । সমলয় চাষে স্বল্পসময়ে অল্প খরচের মাধ্যমে যে জমি অসময়ে ফেলে রাখা হতো সে জমিগুলোতে একটি ফসল বেশি করে চাষ করা যাবে। এবং ১১০ দিনের মধ্যে এ ধান কাটা যায়, এ সমলয় চাষে কৃষকরা উপকৃত হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category