• শুক্রবার, ০৬ অগাস্ট ২০২১, ০৭:০৮ পূর্বাহ্ন

ঠাকুরগাঁও চেয়ারম্যানের দুর্নীতি তথ্য প্রমাণ সত্য হওয়ার পরও মামলা থেকে অব্যাহতির সুপারিশ করেছে — দুদক

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি / ১১৫ Time View
Update : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০

  দুর্নীতি দমন কমিশন প্রকল্পের চাল আত্মসাতের প্রমাণ পাওয়ার পরও ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার ইউপি চেয়ারম্যান সহ পাঁচজনকে মামলা থেকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় সমালোচনার ঝড় উঠেছে। অভিযোগপত্র থেকে জানা যায়, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার ঢোলারহাট ইউপি চেয়ারম্যান সীমান্ত কুমার বর্মণ, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা গোলাম কিবরিয়া, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বিপ্লব কুমার, গড়েয়া হাট খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাঈদুল ইসলাম, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, সাহাব উদ্দীন ও শিবগঞ্জ খাদ্যগুদামের এস এম গোলাম মোস্তফার বিরুদ্ধে জাল কাগজ তৈরি করে ৬ মেট্রিক টন চাল আত্মসাতের অপরাধে মামলা হয়। দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয় দিনাজপুরের সহকারী পরিচালক আহসানুল কবীর পলাশ মামলাটি করেন। গত ৮ ডিসেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনে দিনাজপুরের উপ-সহকারী পরিচালক সাইদুর রহমান চূড়ান্ত প্রতিবেদন সত্য (এফআরটি) আদালতে দাখিল করেন।   প্রতিবেদনে তদন্তকারী কর্মকর্তা সাইদুর রহমান দুই রকম বক্তব্য উল্লেখ করেন। প্রতিবেদনে তিনি বলেন, আসামিদের বিরুদ্ধে প্রকল্প জালিয়াতির প্রমাণ পেয়েছেন। অন্যদিকে আসামিদের এ মামলা থেকে অব্যাহতি প্রার্থনা করেছেন। এফআরটি দাখিলের খবর পেয়ে এলাকাবাসী পক্ষে কয়েকজন গত ২৩ ডিসেম্বর মামলাটি পুনরায় তদন্তের দাবি জানিয়ে ঢাকা দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যানের কাছে লিখিত আবেদন পাঠিয়েছেন। তারা অবিলম্বে পুনরায় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category