• বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ০৮:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
চকরিয়ায় তথ্য আপা দের সহায়তায় অস্বচ্ছল দরিদ্র ১৬০ পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার সামগ্রী বিতরণ যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দীন কবির পিয়াস এর পক্ষ থেকে শহরে বিভিন্ন জায়গায় ইফতার বিতরণ  যশোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দীন কবির পিয়াস এর পক্ষ থেকে শহরে বিভিন্ন জায়গায় ইফতার বিতরণ   ১২দিন বন্ধ থাকবে বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি চিরতরে শেষ অবুঝ দুই সন্তানের পিতা ডাকা! আনোয়ারায় রায়পুর ইউনিয়নের প্রধানমন্ত্রী উপহার পেলেন ৫’শ পরিবার ব্রীজ ভেঙ্গে যাওয়ায় দূর্ভোগে পড়েছে বিভিন্ন শ্রেণীর ব্যবসায়ীরা সিংড়ায় কলেজ ছাত্রীর লাশ উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশনকৈল পৌর মার্কেটে মাছ বাজারের ঢালাই কাজের উদ্বোধন জয়নাল আবেদীন হত্যাকান্ড মগনামায় ঘেরের বাসায় আগুন, আ’লীগের সভাপতির বাড়িসহ ৩ টি বাড়ি ভাংচুর বন্ধ হতে পারে বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্স

ঢেমুশিয়া প্যানেল চেয়ারম্যানের প্রবাসী পুত্র বধূ পলায়নের প্রকাশিত সংবাদ শিরোনামের প্রতিবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৭১ Time View
Update : শনিবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২১

প্রেসবিজ্ঞপ্তি

২২ জানুয়ারি শুক্রবার স্থানীয় কক্সবাজার৭১ পত্রিকায় প্রকাশিত কক্সবাজার চকরিয়া উপজেলা ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আরেজ খাতুনের প্রবাসী পুত্রবধু পলায়ন শীর্ষক প্রতিবেদনের প্রতিবাদ জানিয়েছেন ঢেমুশিয়া ৪ নং ওয়ার্ড ছয়কুড়িটিক্কা পাড়া জয়নাল আবেদিনের ছেলে এজাহার হোসেন। শনিবার বিবিসি মর্ণিং এ পাঠানো এক প্রতিবাদলিপিতে এজাহার হোসেন বলেন, প্রতিবেদনটি ‘সম্পূর্ণ বানোয়াট, মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।’
তার প্রতিবাদলিপিতে আরও বলেন, ‘দেশের বেশ কয়েকটি স্থানীয় দৈনিক পত্রিকা ও অনলাইন গণমাধ্যমে আমাকে নিয়ে যে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে, আমি তার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, গত ২১ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার চকরিয়া থানা রাস্তার মাথায় বেশ কয়েকজন ছেলে এসে এলোপাথারি আমাকে মারধর করতে থাকে এবং আমাকে স্থানীয় চকরিয়া থানায় পুলিশে ধরিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। এই ঘটনার উপর ভিত্তি করে জানতে পারলাম একটি স্বাভাবিক ঘটনাকে ভিত্তিকরে আমাকে মারধর ও মামলার হুমকি দেয়। গত ২০ জানুয়ারি ঘটনারদিন ভোর ৫ ঘটিকায় প্রতিদিনের মতো সিএনজি গাড়ি নিয়ে বের হই। চিরিংগা চকরিয়ার দিকে আসতেই পথিমধ্যে শিশুসহ একজন মহিলা সিগন্যাল দিলেই গাড়ি থামিয়ে জিজ্ঞাস করলাম কোথায় যাবেন। ঐ মহিলা বললো চকরিয়া যাবে, তাই কথামতো তাকে চকরিয়া নামিয়ে দিলাম। এখানে আমার গাড়িতে যারা ওঠে তারা শুধুমাত্র যাত্রী। কে কোথায় থেকে আসলো কিংবা পরিচয় কি তা আমার দেখার বিষয় নই। শুধু আমি কেন দেশের কোন ড্রাইভারদের প্রয়োজন নেই বলে মনে করি। যাইহোক, পরে জানতে পারলাম উক্ত পত্রিকায় উল্লেখ আছে, শিশুসহ ঐ মহিলাটির শ্বশুর বাড়ি ঢেমুশিয়া ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আরেজ খাতুনের পুত্র হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী। আমাকে ঢেমুশিয়া ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান কর্তৃক বিভিন্ন ভাবে মামলার হুমকি ধামকি দিয়ে যাচ্ছে। এই ব্যাপারে আমি মাননীয় সাংসদ (চকরিয়া – পেকুয়া) ,উপজেলা চেয়ারম্যান, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
আমি পুনরায় প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category