• মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০১:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
দেশে মাথাপিছু আয় ১ লাখ ৮৮ হাজার ৮৭৩ টাকা ঠাকুরগাঁওয়ের আ’লীগ নেতার গোডাউনে ২৪০ বস্তা সরকারি চাল উদ্ধার, আটক-১ গাজায় ইসরাইলি হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২০০ চকরিয়ায় এসএসসি ব্যাচ’৯১ এর উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী সম্পন্ন মোংলা পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের নতুন কমিটি ঘোষনা সভাপতি মোহন সাধারণ সম্পাদক দিদার চকরিয়ায় সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় মামলা তুলে নিতে আদর বাহিনীর হুমকি, জিডি করায় সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ! মোংলায় করোনা মোকাবেলায় দুস্থদের চাল দিলেন উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার চকরিয়া পৌর এলাকায় কোচপাড়ায় পৈতৃক ভিটা জবর দখলে নিতে সন্ত্রাসী হামলা ঈদের দিনে ঠাকুরগাঁওয়ে সড়কে প্রাণ গেল তিনজনের সময়ের আগেই ঢাকায় শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল

পেকুয়ায় গুম ও অপহরণ হুমকি, ইউপি সদস্য দিলেন থানায় অভিযোগ

পেকুয়া প্রতিনিধি / ২৯২ Time View
Update : শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১

পেকুয়ায় অপহরণ ও গুম করার হুমকিতে এক ইউপি সদস্য থানায় লিখিত অভিযোগ প্রেরণ করেন। প্রাণনাশসহ নানান ধরনের হুমকি ধমকি অব্যাহত রয়েছে। এ ছাড়াও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ইউপি সদস্যকে নিয়ে অযাচিত কাল্পনিক লেখালেখি চলমান রয়েছে। জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে মূলত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক থেকে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। এ ছাড়াও একই ব্যক্তি ইউপি সদস্যকে অপহরণসহ লাশ গুম করারও দেয়া হচ্ছে হুমকি। এতে করে জনগনের ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ওই ইউপি সদস্য ভীত সন্ত্রস্ত হন। যে কোন মুহুর্তে জানমালের নিরাপত্তা বিঘিœত হতে পারে। এ আশংকায় ইউপি সদস্য আইনী সহায়তার জন্য রাষ্ট্রপক্ষের ধারস্থ হয়েছেন। নিজের নিরাপত্তা বিধান ও আইনী সহায়তার জন্য রাস্ট্রের প্রশাসনযন্ত্রসহ পুলিশের দৃষ্টি আকৃষ্ট করতে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পেকুয়া থানা পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিন পরিদর্শনে যান। ইউপি সদস্যের নাম মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন। তিনি উপজেলার বারবাকিয়া ইউপির ৪ নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য। ৮ এপ্রিল পেকুয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ পৌছানো হয়েছে। অভিযোগের আর্জি সুত্র জানায়, মো: বেলাল উদ্দিন ২০১৬ সালে বারবাকিয়া ইউপির ৪ নং ওয়ার্ড থেকে বিপুল ভোটে মেম্বার নির্বাচিত হন। সে সময় তার প্রতিদ্বন্ধী ছিলেন প্রতিবেশী আমিন শরীফের ছেলে মাহামুদুল করিম। তিনিসহ ওই নির্বাচনে মেম্বার পদে প্রার্থী ছিলেন ৪ জন। ভোটে মাহামুদুল করিমের জামানত বাজেয়াপ্ত হয়। সে সময় থেকে পরাজিত ওই প্রার্থী তার পিছুনে লাগে। বিশেষ করে সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডে বাধাগ্রস্তসহ নানান ধরনের অপতৎপরতায় তার প্রকাশ্য ভূমিকা মানুষের দৃষ্টিগোচর ছিল। নির্বাচিত প্রার্থীকে বিতর্কিত ও সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে পরাজিত প্রার্থী তৎপর হন। সম্প্রতি মাহামুদুল করিম তার নিজস্ব ফেইসবুক আইডি থেকে ইউপি সদস্যকে নিয়ে মানহানিকর তথ্য প্রচার করছে। কাল্পনিক ও মনগড়া পোষ্ট দিয়ে ইউপি সদস্য বেলাল উদ্দিনকে ঘায়েল করছে। এর প্রতিবাদ করলে ওই আইডি থেকে ভূক্তভোগী ব্যক্তিকে নানান ধরনের হুমকি ধমকি দিচ্ছিলেন। এমনকি এর প্রতিবাদ করলে লাশ গুম করিবে অপহরণ করা হবে চালানো হবে প্রাণনাশ। বারাইয়াকাটার বাসিন্দা মো: রিদুয়ান জানান, মাহামুদুল করিম জনবিচ্ছিন্ন। তার কাছ হচ্ছে ভাল মানুষগুলোকে হেনস্থা করা। বেলাল মেম্বার একজন ন্যায় পরায়ন গ্রহনযোগ্য ব্যক্তি। তার মেম্বারের সময়ে আমরা অন্যায় ও অবিচার দেখতে পাইনি। একটি রাস্তা নিয়ে মাহামুদুল করিম বেলাল মেম্বারের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। করিম বলেছে, রাস্তা দখল করে বেলালের ভাই ঘর নির্মাণ করছে। এ কথা ডাহা মিথ্যা। আমি সকলকে অনুরোধ জানাবো এখানে প্রকৃতপক্ষে সরকারী রাস্তাটি কে জবর দখলে রেখেছে। করিম তার বসতবাড়ির সীমানায় রাস্তার অর্ধেকের বেশী জায়গা জবর দখল করে ফেলেছে। তার বাড়ির পূর্ব পাশের্^ তার আরেক ভাই চলাচল রাস্তাটির ৭৫ ভাগ ঘিরে ফেলেছেন। বেলাল মেম্বার এর প্রতিবাদ করায় এখন মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছেন ওই করিম। শাকের, ছাবের আহমদ ও মানিকসহ আরো অনেকে জানান, এ রাস্তা দিয়ে আমরা চলাফেরা করি। করিম ও তার ভাই রাস্তাটির অর্ধেকের বেশী অংশ ঘিলে ফেলেছে। শুনেছি এখন অভিযোগ দিচ্ছে করিম নিজেই। অপরাধ করবেন যিনি আবার মিথ্যা দরখাস্ত দেনও তিনি। আহারে সমাজ। আমরা কোন চরিত্রের মানুষ দেখেছি এখানে। ইউপি সদস্য মো: বেলাল উদ্দিন জানান, করিম অহেতুক আমাকে নিয়ে বাড়াবাড়ি করছে। আমাকে হয়রানি ও প্রশ্নবিদ্ধ করলে করিম যে ভোটে জিতবেন এ গ্যারান্টি আসলে তাকে কে দিয়েছে। আমাকে প্রাণনাশ হুমকি দেয়া হচ্ছে। লাশ গুম করবে বলে হুমকি দিচ্ছে। আমি নিরাপত্তা হুমকিতে ভোগছি। প্রশাসনের নিকট আইনী সহায়তার জন্য লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। আমারতো মান সম্মান আছে। বেঁচে থাকার অধিকার আমারও আছে। জনগন ভোট দিয়েছে বলে আমি মেম্বার হয়েছি। করিমও জনগনের দৃষ্টি আকৃষ্ট করতে পারলে ভোটে জিতলে আমার সমস্যা নেই। কিন্তু প্রতিপক্ষকে ফেইসবুক দিয়ে ঘায়েল করা এটি নিকৃষ্টতম আচরণ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category