• শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
ইউরো কাপের নকআউটে মুখোমুখি কারা এডভোকেট আমজাদ হোসেন’র দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালন পরিস্থিতি বুঝে যেকোনো সময় সিদ্ধান্ত : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী চতুর্থ ধাপে ২৯৭৩ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার নামের সমন্বিত তালিকা প্রকাশ সিংড়ায় নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে বীর মুক্তিযোদ্ধার রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন গরীবের ডাক্তার খ্যাত ডা.শম্ভু দে’র মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প রেফারির পায়ে বল, বিতর্কিত গোলে জয় ব্রাজিলের পঞ্চগড় সুগারমিলের চুক্তিভিত্তিক শ্রমিক ছাটাই বন্ধের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন মোংলায় ৪২০ পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে ‌র‌্যাব

পেকুয়ায় জন চলাচলের ছয় ফুটের রাস্তার তিন ফুটই তাঁর দখলে, দুর্ভোগ

পেকুয়া প্রতিনিধি / ১৩৯ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের মাতবরপাড়া এলাকায় একটি চলাচল রাস্তার ছয়ফুট প্রস্থের মধ্যে তিনফুটই দখল করে নিয়েছেন এক প্রভাবশালী। চলাচল পথ খুলে দিতে স্থানীয়রা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, মাতবরপাড়া এলাকায় সাবেকগুলদি স্টেশনের পশ্চিমে তিন কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের একটি চলাচল পথ রয়েছে। এই চলাচল পথ দিয়ে মাতবরপাড়া, সুতাবেপারী পাড়া ও চরপাড়ার বাসিন্দারা চলাচল করেন। এই পথটির তিন কিলোমিটার অংশের মধ্যে মাত্র ৫০ ফুট রাস্তায় রয়েছে যত বাধা। তিন কিলোমিটার রাস্তারটির মোট প্রস্থ ছয় ফুট। কিন্তু ৫০ ফুট অংশে সড়কটির প্রস্থ হয়েছে মাত্র তিন ফুট। বাকি তিন ফুট ওই এলাকার মৃত গোলাম কাদেরের ছেলে মো. কালু দখল করে নিয়েছেন।

স্থানীয় নুর মোহম্মদ, মো.আলমগীর, জসিম উদ্দিন, মো. সরওয়ার, নজরুল ইসলাম, কামাল হোসেন, মইদুর রহমান ও মো. কাদের বলেন, এই রাস্তাটি দীর্ঘদিনের একটি চলাচলের রাস্তা। শুধু মাতবর পাড়ার লোকজন নয়, এই রাস্তা দিয়ে সুতাবেপারী পাড়া, মাইজপাড়া ও চরপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকার লোকজন চলাচল করে। কিন্তু স্থানীয় কালু সড়কটির ৫০ ফুট অংশে তিন ফুট করে দখল করে নেয়ায় চলাচলে বিঘœ ঘটছে। আমরা চলাচল পথ উন্মুক্ত করে দেয়ার জন্য প্রশাসনের নিকট দাবি জানাচ্ছি।

এবিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মাহবুবুল করিম বলেন, পুরো সড়কটিতে ৬ ফুটের মতো প্রস্থ ছিল। কিন্তু কালুসহ স্থানীয় কিছু ব্যক্তি রাস্তাটি তাঁদের মাথা খিলা হিসেবে দখল করে ঘেরা-বেড়া দিয়ে রেখেছে। এতে স্থানীয় লোকজন ক্ষুদ্ধ হয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category