• সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১১:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম
সিংড়ায় ৪২তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ মেলার উদ্বোধন ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১ আহত ১ রানীশংকৈলে সামাজিক নিরাপত্তা সহায়তা বিষয়ক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  গুরুদাসপুরে এলজিএসপি’র রাস্তা নির্মাণে অনিয়মের অভিযোগ ডুলাহাজারায় ২০ শতক ভিটেমাটি জবরদখল চেষ্টার অভিযোগ বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে যশোর মণিরামপুরে স্বাস্থ্যকর্মীদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি চলমান পেকুয়ায় লবণ মাঠ জবর দখলে নিতে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের শংকা আরবান প্রাইমারী হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস ডেলিভারী প্রকল্প -২য় পর্যায়, ডিএসসিসি, পার্টনারশিপ এরিয়া-৩ হাজারীবাগে বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসা পেকুয়ায় অগ্নিকান্ডে বসতবাড়ি ভস্মীভূত পঞ্চগড় ‘মুক্ত দিবস’ পালিত

পেকুয়ায় পূজামন্ডপে টাকা দিলেন হিন্দু মহাজোট

পেকুয়া প্রতিনিধি / ৩৬ Time View
Update : সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০

পেকুয়ায় পূজামন্ডপে নগদ অর্থ সহায়তা দিলেন সনাতন ধর্মালম্বীদের উপজেলার বৃহৎ সংগঠন হিন্দু জাতীয় মহাজোট। সনাতন ধর্মালম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব শেষ হয়েছে। বাঙ্গালীর সবচেয়ে আকর্ষনীয় দুর্গোৎসবকে ঘিরে এবার পেকুয়ায় হিন্দু মহাজোট নানান ধর্মীয় উৎসব পালন করে। ৬ দিনব্যাপী এ দুর্গোৎসবের মহা দশমী শেষ হয়েছে। ষষ্টী থেকে দশমী পর্যন্ত হিন্দু জাতীয় মহাজোট এবার দুর্গোৎসবে জমকালো আয়োজন করেছে। এ উপলক্ষে হিন্দু জাতীয় মহাজোট উপজেলায় ৯ টি পূজা মন্ডপে নগদ টাকা বিলি করে। সংগঠনের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি টীম উপজেলার সব কটি পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন। এ সময় দুর্গোৎসবের পৃথক আয়োজক ইউনিয়ন কমিটির হাতে পূজোর জন্য নগদ অর্থ তুলে দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া সভাপতি ও সম্পাদকের সমন্বয়ে বারবাকিয়া কেন্দ্রীয় লোকনাথ মন্দিরে শারদীয় দুর্গোৎসব পালন করে। দুর্গোৎসবকে সফল ও সার্থক করতে হিন্দু মহাজোট উপজেলার ৯ টি পূজা মন্দির পরিদর্শন করেছেন। এ সময় সনাতন ধর্মালম্বীদের বৃহৎ ওই উৎসবে মহাজোটের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা বিনিময় করা হয়েছে। আচার রীতি অনুষ্টান ও পূজো পর্বণ নিয়ে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের সাথে স্বাক্ষাৎকার ও মতবিনিময়ও করেছেন। এ সময় প্রত্যেক মন্দিরের উন্নয়নের জন্য নগদ টাকা দেন হিন্দু মহাজোট। এ সময় হিন্দু মহাজোটের পেকুয়ার সভাপতি সজল দেবনাথ ও সাধারন সম্পাদক শান্তুনু বিশ^াসসহ ওই সংগঠনের জৈষ্ট্যনেতারা টাকা বিলির সময় উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া পেকুয়ায় আ’লীগের প্রভাবশালী নেতা হাজী সাহাব উদ্দিন জারদারী, ছাত্রলীগ নেতা ফোরকানুল ইসলামসহ ক্ষমতাসীন দলের বিপুল নেতা-কর্মী এ সময় উপস্থিত ছিলেন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হিন্দু মহাজোট পেকুয়ার সহ সাধারন সম্পাদক সজিব শর্মা, অর্থ সম্পাদক সুকুমার চন্দ্র সুশীল, সহসভাপতি মিথুন বিশ^াস, রঞ্জিত সুশীল, রমেশ সুশীল, আশুতোষ নাথ। উপস্থিত ছিলেন পাঁছকরি নাথ, শিমূল নাথ, সঞ্জয় নাথ, অজয় সুশীল, দীপক দাশ, স্বপন দাশ, তন্বয় সুশীল, বাপ্পী সুশীল, টিটু সুশীল, কাজল সুশীল, বানু সুশীল, বিমল সুশীল, রিংকু সুশীল, প্রণব দেবনাথ, রনি দেবনাথ, টিটু দেবনাথ, জয় দেবনাথ, শুভ দেবনাথ, লিটন সুশীল, বাচ্চু সুশীল, শুভ বিশ^াস, জয়ন্তী বিশ^াস, রুবি সুশীল, কাজল দেবনাথ, অনীল দেবনাথ, শিমূল দেবণাথ, সজিব দেবনাথ, জয়শ্রী দেবনাথ, পঙ্কজ দেবনাথ, আফিয়া দেবনাথ, জন্টু দেবনাথ, শুকলা দেবনাথ, অজয় সুশীল প্রমুখ। ২৫ অক্টোবর হিন্দুমহাজোট পেকুয়ায় ৯ টি মন্দিরে এ সব অর্থ দেন। পেকুয়ায় কেন্দ্রীয় হরি মন্দির বিশ^াসপাড়ায় ঘটমন্দির, পেকুয়া সুশীল পাড়ায় মন্দির শিলখালী হরি মন্দির, বি মন্দির, বারবাকিয়া নাথ পাড়া পূজা মন্দির, লোকনাথ মন্দিরে টাকা বিলি করা হয়েছে। ২১ অক্টোবর ষষ্টী বিহীত পূজোর মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে ৬ দিন ব্যাপী শারদীয় দুর্গোৎসব। সোমবার (২৬ অক্টোবর) বিজয়ী দশমীর মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে পূজার আনুষ্টানিকতা। এবারের তাৎপর্য্য হল শস্যপূর্ণ বসুন্ধরা অর্থ্যাৎ ফলে ফসলে সমৃদ্ধ হবে দেশ। হিন্দু মহাজোট পেকুয়ার সভাপতি সজল দেবনাথ ও সাধারন সম্পাদক শান্তুনু বিশ^াস বলেন, আমরা হিন্দুদের আচার পর্বণের জন্য পেকুয়ায় কাজ করছি। এখানে সনাতন ধর্মালম্বীদের একক সংগঠন হিন্দু জাতীয় মহাজোট। তবে কিছু কুচক্রীমহল ভূইফোড় সংগঠনের নাম দিয়ে সরকারী অনুদান আত্মসাৎ করেছে চলেছে। পূজা হয় ৯ টি মন্দিরে তারা সরকার থেকে বরাদ্ধ হাতিয়ে নেয় ১৪ টি মন্দির দেখিয়ে। আমরা ওই দুর্ণীতিবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা চাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category