• শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
চতুর্থ ধাপে ২৯৭৩ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার নামের সমন্বিত তালিকা প্রকাশ সিংড়ায় নদী থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে বীর মুক্তিযোদ্ধার রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন গরীবের ডাক্তার খ্যাত ডা.শম্ভু দে’র মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প রেফারির পায়ে বল, বিতর্কিত গোলে জয় ব্রাজিলের পঞ্চগড় সুগারমিলের চুক্তিভিত্তিক শ্রমিক ছাটাই বন্ধের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন মোংলায় ৪২০ পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে ‌র‌্যাব সড়কে দুর্ঘটনা এড়াতে চালকদের মাদকমুক্ত রাখা জরুরী; ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশনের ক্যাম্পেইন শরনখোলায় আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে নৌকা উপহার পেলেন চার অসহায় জেলে আনোয়ারায় আওয়ামীলীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

পেকুয়ায় হামলায় আহত-১, সরকারী নলকূপ অকেজো

পেকুয়া প্রতিনিধি / ১১৮ Time View
Update : রবিবার, ২৮ মার্চ, ২০২১

পেকুয়ায় অতর্কিত হামলায় একজন দিনমজুরকে জখম করা হয়েছে। সরকারী একটি গভীর নলকূপে নাশকতা চালানো হয়েছে। এর প্রতিবাদ করায় দুবৃর্ত্তরা বয়:বৃদ্ধ ওই ব্যক্তিকে বেড়িবাঁধে পিটিয়ে জখম করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। ২৭ মার্চ (শনিবার) সকাল ৭ টার দিকে উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের উপকুলীয় বনবিট কার্যালয়ের সামনে জেটিঘাটের উত্তর দিকে বেড়িবাঁধে এ ঘটনা ঘটে। আহত ব্যক্তির নাম মাহাবুবুর রহমান (৬০)। তিনি মগনামা ইউনিয়নের মিয়াজিপাড়ার মৃত আশরাফ আলীর ছেলে। স্থানীয় সুত্র জানায়, মিয়াজিপাড়ায় একটি নলকূপ নিয়ে মৃত আশরাফ আলীর পুত্র মাহাবুবুর রহমান গং ও প্রতিবেশী মৃত গোলাম রহমানের ছেলে জকির ও তার ভাই শাহ আলম গংদের মধ্যে বিরোধ চলছিল। ২০/৩০ বছর আগে পানির চাহিদা দূরীভূত করতে সরকারী অর্থায়নে একটি নলকূপ স্থাপন করা হয়েছিল। নলকূপটি মিয়াজিপাড়ার প্রায় ২শতাধিক পরিবার এর সুফলভোগী। এ দিকে সম্প্রতি নলকূপটি একক আধিপত্য নিতে গোলাম রহমানের পুত্র জকির ও শাহ আলম গং অতি উৎসাহী হন। এর সুত্র ধরে তারা নলকূপ থেকে স্থানীয়দের পানি সরবরাহ বন্ধ করে দেয়। এর সুত্র ধরে মাহাবুবুর রহমান ও জকির গংদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। ঘটনার দিন সকালে মাহাবুর রহমান নিজ বাড়ি থেকে বের হন। বেড়িবাঁধে মাটি কাটতে যাচ্ছিলেন। পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে পথিমধ্যে জেটিঘাটের উত্তর পাশের্^ বেড়িবাঁধে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা জকির, শাহ আলম গং তাকে পিটিয়ে আহত করে। এমনকি একই দিন সন্ধ্যার দিকে শাহ আলম গংদের পক্ষে তার ভগ্নিপতি আফজলিয়াপাড়ার মৃত নুরুন্নবীর ছেলে কাইছার তার ভাই শাহাব উদ্দিনসহ আরো কয়েকজন উত্তেজিত হয়ে মিয়াজিপাড়ায় এসে নলকূপ ভাংচুর করে। এমনকি ভূ-গর্ভস্থ পানি আটকিয়ে দিতে তারা নলকূপের নলের ভিতরে ইটের কংকর, বালি ঢুকিয়ে দেয়। প্রত্যক্ষদর্শী মাহাবুর রহমানের ভাতিজা দিদারুল ইসলাম বলেন, গোলাম রহমানের ছেলে নুরুল আলম নুরীর উসকানিতে এ সব হয়েছে। তিনি একজন হুজুর মানুষ। শত শত মানুষের পানি আটকিয়ে দেন কিভাবে। এটি চরম শত্রুতামি। নলকূপটি কংকর, বালি ঢুকিয়ে দিয়ে অকেজো করে ফেলে। আবুল হোসেনের ছেলে ছাবের আহমদ, আবদুন নবীর ছেলে আলী হোছাইন, মৃত জালাল আহমদের ছেলে শাহাদাত কবিরসহ মিয়াজিপাড়ার আরও একাধিক স্থানীয়রা জানান, এ নলকূপটি ২০/২৫ বছর আগে বসানো হয়েছে। নুরুল আলম নুরী ও তারা ৩ ভাই এককভাবে ভোগ করার জন্য আমাদেরকে পানি না নিতে বারণ করেছে। মূলত তারা ক্ষিপ্ত হয়ে নলকূপটি চিরতরে নষ্ট করে ফেলেছে। পেকুয়া থানার ওসি সাইফুর রহমান মজুমদার জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category