• রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০৮:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম

পোর্তোর কাছে হেরে শঙ্কায় জুভেন্টাস

বিবিসি একাত্তর ডেস্ক / ৫৯ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

একই দেশের দুটি ক্লাব। লিগে দেখা হয় প্রায়ই। প্রতিপক্ষ সম্পর্কে বেশ ভালো জানাশোনা। কিন্তু তারপরও হতাশ হতে হলো রোনালদোর জুভেন্টাসের। এফসি পোর্তোর কাছে তার দল হেরে গেছে বুধবার রাতে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ঘরের মাঠে পোর্তো ২-১ গোলে হারিয়েছে জুভ বাহিনীকে। এই জয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের পথে এগিয়ে থাকল পর্তুগালের ক্লাবটি।

সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা দুই ম্যাচ হারল জুভেন্টাস। আর জয়হীন টানা তিন ম্যাচ। শেষ আটের পথে এই হার অনেক শঙ্কার। ফিরতি পর্বে জয় ছাড়া কোনো উপায় নেই তাদের। তবে আশার কথা হলো, দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ জুভেন্টাস খেলবে ঘরের মাঠে।

ম্যাচ শুরুর দুই মিনিটেই গোল হজম করে জুভেন্টাস। সতীর্থের ব্যাকপাস পেয়ে গোলরক্ষক স্ট্যাসনি ডি-বক্সের মুখে বাড়ান বেন্তানকুরকে। উরুগুয়ের এই মিডফিল্ডার কী ভেবে স্ট্যাসনিকেই ফিরতি পাস বাড়ান, তবে লক্ষ্য ঠিক ছিল না। কাছেই দাঁড়ানো মেহেদি তারেমি ছুটে গিয়ে বল পাঠান জালে (১-০)।

পিছিয়ে পড়ে প্রতিপক্ষের চাপে আরো কোণঠাসা হয়ে পড়ে জুভেন্টাস। নিজেদের সীমানায় বারবার ভুল করতে থাকে তারা। দ্বিতীয়ার্ধের ১৯ সেকেন্ডের মাথায় দ্বিতীয় গোল হজম করে জুভেন্টাস। উইলসন মানাফার পাস ডি-বক্সে দুই ডিফেন্ডারের মাঝে প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে দ্বিতীয় স্পর্শে বল জালে জড়ান মুসা মারেগা। প্রতিযোগিতার ইতিহাসে দ্বিতীয়ার্ধে এটাই জুভেন্টাসের জালে দ্রুততম গোল।

প্রথমার্ধে নিজের ছায়া হয়ে থাকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো দ্বিতীয়ার্ধে চেষ্টা করেছেন বেশ। কিন্তু গোলের দেখা পাননি। ৮২ মিনিটে মূল্যবান অ্যাওয়ে গোলটি পায় জুভেন্টাস। গোলটি করেন ফেডেরিকো চিয়েসা।

অতিরিক্ত সময়ে রেফারির সিদ্ধান্তকে ঘিরে বিতর্কের জন্ম নেয়। ডি-বক্সে প্রতিপক্ষের বাধায় রোনালদো পড়ে গোলে পেনাল্টির জোরালো আবেদন ওঠে। তবে ভিএআরের সাহায্য নেননি রেফারি, কয়েক সেকেন্ড পরেই বাজিয়ে দেন বাঁশি।
জুভেন্টাসের খেলোয়াড়দের চোখে-মুখে ছিল অসেন্তোষের ছাপ।

আগামী ৯ মার্চ ঘরের মাঠে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে পোর্তোর মুখোমুখি হবে জুভেন্টাস।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category