• সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৯:৩৭ অপরাহ্ন

মোংলায় প্রায় ১৯ কোটি ৬১ লাখ টাকার অবৈধ কাপড় জব্দ

শেখ রাসেল, মোংলা / ৬২ Time View
Update : সোমবার, ১৫ মার্চ, ২০২১

মোংলা বন্দরের হারবারিয়া চ্যানেলের চরপুটিয়া খাল সংলগ্ন এলাকায় গত শুক্রবার (১২ মার্চ) রাতে অভিযান পরিচালনা করে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশের সময় একটি ট্রলারে তল্লাশী করে ১৮ কোটি ৬১ লাখ টাকার বিদেশী শাড়ি কাপড় জব্দ করেছে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের অপারেশন কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম. ইমতিয়াজ আলম জানান, দেশের সমুদ্রসীমা ও নদীপথে চোরাচালান বন্ধ এবং অবৈধ পণ্য পাচার রোধে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের আওতাধীন সকল টহল জাহাজসমূহ এবং স্টেশানে কর্মরত বিসিজি কন্টিনজেন্টের সদস্যরা সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকাসমূহের সকল নদী ও খালে নিয়মিত নজরদারি রাখছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত শক্রবার রাতে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের বিসিজি বেইজ মংলার একটি টহল দল মোংলা বন্দরের হারবারিয়া চ্যানেলের চরাপুটিয়া খাল এলাকায় টহলদানকালে একটি ট্রলার দেখতে পায়। বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় ওই ট্রলারে থাকা লোকজনকে হ্যান্ড মাইক দিয়ে ট্রলার থামানোর নির্দেশ দেয় কোস্টগার্ড সদস্যরা। এসময় কোস্টগার্ড সদস্যদের দেখে ট্রলারে থাকা চোরাকারবারীরা চরাপুটিয়া খালে লাফ দিয়ে সুন্দরবনের অভ্যন্তরে পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। পরে ওই ট্রলারে তল্লাশী করে ১৪ হাজার ৩৭৭ পিস বিদেশী শাড়ি,১ হাজার ৩০৩ পিস লেহেঙ্গা, ৩৯৬ থ্রি-পিস এবং ৪৭৫ জোড়া জুতা জব্দ করা হয়।
তিনি আরো জানান, ঈদকে সামনে রেখে একটি চোরাকারবারি চক্র অবৈধ পথে বিদেশী শাড়ি কাপড়ের চালান বাংলাদেশে আনার চেষ্টা করছিল। জব্দকৃত এসব অবৈধ বিদেশী পণ্যের মূল্য ১৮ কোটি ৬০ লাখ ৮৪ হাজার ২৫০ টাকা বলে জানিয়েছে কোস্টগার্ড।
জব্দকৃত অবৈধ শাড়ি কাপড় ও ট্রলার পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ১৪ মার্চ সকালে মোংলা থানায় স্থানান্তর করা হয়েছে। সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকাসমূহে অবৈধ পণ্য পাচারকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে কোস্টগার্ড সবসময়ই দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করেছে। ভবিষ্যতেও এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের এই কর্মকর্তা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category