• শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
কোনাখালীতে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশ্বে দাঁড়ালেন সম্ভ্যব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ডাঃ মোহাম্মদ নুরুল কবির ২১ বছর যারা বুকে পাথর বেঁধে কাজ করেছেন, তাদের মূল্যায়ন করতে হবে -তথ্যমন্ত্রী চকরিয়া যুব পরিষদের উদ্যোগে চকরিয়ায় শুরু হয়েছে শীতকালীন ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা আনোয়ারায় ইমাম হাশেমী ডিজিটাল প্রিন্ট মিডিয়ার শুভ উদ্বোধন কোটচাঁদপুরে মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদ ও প্রাপ্ত সম্পত্তি পাওয়ার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন মহেশপুরে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রানীশংকৈল দোকান কর্মচারী শ্রমিক ইউনিয়নের অভিষেক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত আমরা পাড়ার বন্ধু গ্রুপের সৌজন্যে কোরআনের পাখিদের উপহার প্রদান পেকুয়ায় স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টা; থানায় এজাহার রাত পোহালেই মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচন

মোংলা পৌর নির্বাচনে দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে প্রার্থী হতে চাইলে তাকে দল ছাড়তে হবে : মেয়র খালেক

শেখ রাসেল, মোংলা উপজেলা প্রতিনিধি / ৫৫ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, ২০১১ সালে মোংলা পৌরসভার নির্বাচনে নিজেদের ভুলের কারনে আওয়ামীলীগের প্রার্থীরা জিততে পারে নাই। দীর্ঘ ১০ বছর ওই বিএনপি জামাতের লোকেরাই পৌরসভা নিয়ন্ত্রন করেছে। নিজেদের অভ্যন্তরীন কোন্দল আর একাধিক প্রার্থী থাকায় পৌরসভার সবগুলো ওয়ার্ডেই বিএনপি জামায়াতের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছে। এবার পৌরসভা নির্বাচনে দল থেকে যাকে মনোনয়ন দেওয়া হবে তিনিই মেয়র এবং কাউন্সিলর পদে নির্বাচন করবেন। আর কেউ যদি সাংগঠনিক সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে নির্বাচন করতে চান তাহলে নিজ দায়িত্বে করবেন। সংগঠনে তাদের আর জায়গা হবেনা।
মেয়র খালেক আরো বলেন, আওয়ামীলীগ ২০ বছর ধরে ক্ষমতায়। মোংলা বন্দরের যত উন্নয়ন সব আওয়ামীলীগ সরকার করেছে কিন্তু মোংলা পৌরসভার ভোটাররা আওয়ামীলীগকে ভোট দেয় নাই। ভোট দিয়েছে বিএনপির লোকজনকে। আর তারা নির্বাচিত হয়ে পৌরবাসীর পাছায় লাথি মেরেছে। বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৩ টায় সরকারি টি এ ফারুক স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে আয়োজিত পৌরসভার ১,২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বিশাল কর্মীসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে কর্মী সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন, বাগেরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি আলহাজ্ব ইদ্রিস আলী ইজারাদার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস, সাধারন সম্পাদক ইব্রাহিম হোসেন, পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব শেখ আব্দুস সালাম, সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব শেখ কামরুজ্জামান জসিম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী তালুকদার আকতার ফারুক, আওয়ামীলীগ নেতা মোল্লা তারিকুল ইসলাম, এ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম প্রমূখ।

তালুকদার আব্দুল খালেক আরো বলেন,
পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থী নির্বাচন করবেন কেন্দ্রীয় কমিটি। আর কাউন্সিলর পদে আমি এবং এমপি হাবিবুন নাহার এখানকার দলীয় নেতাকর্মীদের মতামত নিয়ে প্রার্থী নির্বাচন করবো। দল যাদের নমিনেশন দেবে তারাই নির্বাচন করবেন। দলের কর্মীদের উদ্দেশ্যে মেয়র খালেক বলেন, দলের সিদ্ধান্তের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আপনারা আপনাদের মনোনিত প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন। যারা দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করবে তাদেরকে বয়কট করবেন।

কর্মীসমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন পৌর যুবলীগের সভাপতি এস এম কবির, সাধারন সম্পাদক শেখ আল মামুন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মিজানুর রহমান তালুকদার, ফাহিম হাসান অন্তর, মোঃ নুর আলম, ছাত্রলীগ নেতা কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন রানা, শাহরুখ বাপ্পী, রাজুল ইসলাম সানি, মারজুক রাসেল, পারভেজ খান, কাজী মোঃ সাগর ও মাসুম বিল্লাহসহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category