• রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ১১:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পেলেন ডুলাহাজারার ২৯৬৫ পরিবার পঞ্চগড়ে জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত আমরা কীভাবে সিয়াম বা রোজাকে গ্রহণ করেছি! নিয়োগ দিয়েছেন ভিসা; স্থগিত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ইফতার মাহফিল ও স্মরণ সভা সম্পন্ন চকরিয়ায় গাড়ির চাপায় নৈশপ্রহরী নিহত ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলা কমপ্লেক্স ভবনের ভিত্তিস্থাপনের উদ্বোধন করোনায় ১ কোটি মানুষ সরকারের খাদ্য সহায়তা পেয়েছে- আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক কাউন্টার খোলা রেখে টিকিট বিক্রির অপরাধে জরিমানা চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরীর আয়োজনে ইফতার মাহফিল সম্পন্ন

রাজনীতির একাল সেকাল

বিবিসি একাত্তর ডেস্ক / ৮০ Time View
Update : শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১

লেখকঃ মোহাম্মদ ফোরকান

রাজনীতিকে আমরা এনজয় করেছি,তখন রাজনীতি ও রাজনৈতিক মানুষ গুলোর মনোভাব ছিল আজকালকার নেতাদের চেয়ে ভিন্ন।

তখন আমরা মনে করতাম অমুক দলের নেতা মানে আমার ও নেতা,শ্রদ্ধা ভক্তি নিজ দলের নেতাকে যেমন করতাম ঠিক অন্য দলের নেতা কেও তাই করতাম।রাজনীতি খুব বেশী মজার ছিল। নিউমার্কেট সত্তর এখনো মিস করি। এমন কোন দল নাই যে, আমরা প্রতিটা দলের সভাসমাবেশ উপভোগ করতাম।সব কয়টি দলের নেতা কর্মী একসাথে এক টেবিলে (সমসময় নাহলেও) মাঝে মাঝে বসে নাস্তা করতাম।কারো কারো বক্তব্য এতো মধুর ও মনোমুগ্ধকর ছিল যে, না শুনে না দেখে থাকতে পারতামনা।তখন ফিল করতাম দল নয়, দলের মানুষটাকে।

জিয়াউদ্দিন জিয়া সাবেক চেয়ারম্যান বরইতলী ইউনিয়ন।জাহাংগীর আলম বুলবুল সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান চকরিয়া উপজেলা,ছাত্রনেতা হিসাবে এদের বক্তব্য ছিল অসাধারণ। আমার রাজনৈতিক দর্শন চিন্তা চেতনা ভিন্ন ছিল, তার পর ও এরা আমার ও নেতা ছিল।বর্তমান রাজনৈতিক বিভাজন হিংসা হানাহানির রাজনীতি আমার পছন্দ নয়।

কারন আমরা মানুষের রাজনীতি দেশের উন্নয়নের রাজনীতিতে বিশ্বাসী ছিলাম।রাজনীতি যদি দেশ ও জনগনের কল্যানে হয়ে,তাহলে এতো বিভাজন কেন? এতো হিংসা কেন? ভিন্নমতের মানুষগুলো কি মানুষ নয়? ইদানিং লক্ষ্য করছি ভিন্ন দলের কোন নেতা কর্মী মারা গেলে ইন্নালিল্লাহ— পড়তে ও ভুলে যাচ্ছি, মনে করছি একটা আপদ দুর হলো।এই রাজনৈতিক অপস্কৃতি থেকে আমরা বের হতে না পারলে আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম রাজনীতির প্রতি উৎসাহ হারিয়ে মেধাবীরা রাজনৈতিক বিমুখ হয়ে পড়বে।রাজনীতিতে ভিন্নমত ধমন, নিপীড়ন ভবিষ্যত রাজনীতির জন্য অসনি সংকেত। দ্বীর্ঘদিন এধারা চলতে পারেনা।সব দল সব মানুষ কে সম্পৃক্ত না করে একটা দেশ স্বনির্ভর, স্বসম্মানে বিশ্বের বুকে মাথা উচু করে দাড়াতে পারেনা।আমি কোন রাজনৈতিক দলের সমালোচনা করতে চাইনা।

 

একেকটা রাজনৈতিক দল এক একটা ব্র্যান্ড মাত্র। জেনেরিক বা মুল উপাদান হচ্ছে,জনগন। জনগন কারা? আমার আপনার ভাইবোনেরা বা সমগ্র জনগন। তাহলে আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে এতো হিংসা এতো বিদ্বেষ কেন? আসুন দেশ ও দেশের জনগনের উন্নয়নের স্বার্থে সব দল মত ধর্ম বর্ন নির্বিশেষে এক হয়ে দেশের উন্নয়নে কাজ করি।–ক্রমশঃ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category