• বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ১০:৫১ পূর্বাহ্ন

সিংড়ায় পুকুরে বিষ প্রয়োগে মাছ নিধন; ৮ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধন

রাজু আহমেদ, সিংড়া / ৫৫২ Time View
Update : শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০

নাটোরে সিংড়া উপজেলার ১২নং রামানন্দ খাজুরিয়া ইউনিয়নের বিনগ্রাম দোপুকুরিয়া পুকুরে বিষ দিয়ে বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় ৮লক্ষ ৪৪ হাজার টাকার মাছ নিধন করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় ৪জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সিংড়া উপজেলার সুকাশ ইউনিয়নের শতকুড়ি গ্রামের মাছ চাষী সোহেল রানা ও নন্দীগ্রাম সদর উপজেলার আলহাজ্ব আঃ রাজ্জাকের একটি পুকুর তিন বছরের জন্য ইজারা নেয়। পুকুরে পাপদা, গোলশা, রুই, মৃগেল, সিলভার কাপসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করে আসছিল।

এলাকার আধিপত্যসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নন্দীগ্রাম সদর ইউনিয়নের কৈগাড়ী গ্রামের রইচ উদ্দিনের ছেলে মিলন (৩৫) আমজাদ হোসেনের ছেলে ফারুক (৩০) আলহাজ্ব আঃ রাজ্জাকের ছেলে আবু বক্কর সিদ্দিক এলার (৪০) ও মৃত হোসেন আলীর ছেলে জহুরুল (৩৫) সাথে তার বিরোধ চলছিল।

গত ২২ মে ভোর রাতে প্রতিপক্ষরা পুকুরের বিষ দিয়ে প্রায় ৪লক্ষ টাকার মাছ নিধন করে এ ঘটনায় মিলন ও ফারুকের বিরুদ্ধে স্হানীয় গ্রাম্য প্রধানদের কাছে অভিযোগ করেন সোহেল রানা।
স্হানীয় গ্রাম্য প্রধানরা শালিশ বৈঠকের মাধ্যমে মিলন ও ফারুক হোসেনকে ক্ষতিপুরন বাবদ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে। উক্ত টাকা দেয়ার জন্য ১৫ দিনের সময় বেঁধে দেয়া হয়। নির্ধারিত সময় অতিবাহিত হইলে মামলার বাদী সোহেল রানা গ্রামের প্রধানদের নিকট জরিমানার টাকা আদায়ের জন্য পুনরায় অভিযোগ করিলে প্রতিপক্ষের লোকজন অভিযোগ তুলে নেয়ার জন্য প্রাণনাশসহ বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছিল। এর জের ধরে গত ২২ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ভোর রাতে দিকে তারা পুকুরে বিষ ছিটিয়ে দেয়। শুক্রবার সকাল থেকে সারাদিন পুকুরের বিভিন্ন প্রজাতির মাছ মরে ভেসে উঠে।

মাছ চাষী সোহেল রানা জানান, পুকুরই ছিল আমার একমাত্র সম্বল। মাছ চাষ করে আমি আমার পরিবারের জীবিকা নির্বাহ করতাম। এখন আমি কি করব? কি ভাবে ঋণের টাকা পরিশোধ করব। এ ঘটনায় নাটোর কোর্টে মামলা দায়ের করেছেন তিনি।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category