• শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
চকরিয়ায় শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষ্যে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা পুতিন-শি জি-২০ সম্মেলনে যোগ দেবেন : ইন্দোনেশিয় প্রেসিডেন্ট পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের ব্যাখ্যা দাবি করেছেন মির্জা ফখরুল ভারতকে অনুরোধ করার দায়িত্ব কাউকে দেয়া হয়নি : ওবায়দুল কাদের লামা ফাঁসিয়াখালী ইউপির বাসিন্দা ছৈয়দ আহমেদের পরিবার ভূমি দস্যুতার শিকার ঈশ্বরদী উপজেলা ও পৌর শাখার উদ্যোগে স্বেচ্ছাসেবকদলের ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত পেকুয়ায় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির স্ত্রীকে পিটিয়ে জখম ঠাকুরগাঁও রানীশংকৈলে শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী পালন সব কিছুর দাম বাড়লেও আ’লীগের দাম দিন দিন কমছে : গয়েশ্বর সমকালীন প্রসঙ্গ: রাস্তাজুড়ে খড়গ হাতে দাঁড়িয়ে আছে উন্নয়ন!

চকরিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে পাঁচ ডায়াগনষ্টিক সেন্টার বন্ধ

এ কে এম ইকবাল ফারুক,চকরিয়া / ৯০ Time View
আপডেট : রবিবার, ২৯ মে, ২০২২

কক্সবাজারের চকরিয়ায় বিভিন্ন হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়েছে উপজেলা প্রশাসনের নেতৃত্বাধীন ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় বৈধ কাগজপত্র না থাকায় ৫টি ডায়াগনষ্টিক সেন্টার বন্ধ করে দেয়া হয়। রবিবার (২৯ মে) সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত চকরিয়া পৌরশহর ও বদরখালী ইউনিয়নে উপজেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা.ইফতেকারুল মিশুক জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী সারাদেশব্যাপী অনিবন্ধিত হাসপাতাল-ক্লিনিক, ডায়াগনিষ্টক সেন্টারের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় চকরিয়া সহকারি কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.রাহাত উজ জামান এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নেতৃত্বে চকরিয়া পৌরশহর ও বদলখালীতে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালানো হয়।

অভিযানকালে বৈধ কাগজপত্র না থাকায় চকরিয়া পৌরশহরের একুশে ডায়াগনষ্টিক, সেন্ট্রাল হাসপাতালের প্যাথলজী বিভাগ, বদরখালী জেনারেল হাসপাতালের প্যাথলজী বিভাগ, বদরখালী মডার্ণ ডায়াগনষ্টিক সেন্টার, বদরখালী ল্যাব হাউজসহ ৫টি ডায়াগনিষ্টক সেন্টার বন্ধ করে দেয়া হয়। এসময় সেন্ট্রাল হাসপাতাল, বদরখালী জেনারেল হাসপাতালে রোগি ভর্তি থাকায় ১৫দিনের জন্য কার্যক্রম চালানোর সিদ্ধান্ত দেয়া হয়। তবে, এ সময় নতুন কোন রোগি ভর্তি করানো যাবেনা বলেও নির্দেশনা দেয়া হয়।

এছাড়াও চকরিয়ায় আরো ১০/১২টি ক্লিনিক ও হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। এদের মধ্যে অনেকে বৈধ কোন কাগজ দেখাতে পারেনি। তাই তাদের কার্যক্রম বন্ধে আগামী ১৫দিনের সময় বেঁধে দেয়া হয় ।

অভিযানকালে চকরিয়া সহকারি কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.রাহাত উজ জামান, চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. সায়েমুল ইসলাম, চকরিয়া সেনিটারি ইন্সেপেক্টর জয়নাল আবেদিন, চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টোর কিপার মোহাম্মদ হোসেন চকরিয়া থানা পুলিশ ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো ক্যাটাগরি