• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৮:১৫ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]

মহানবী সা.কে নিয়ে কটূক্তি : ভয়াবহ কূটনৈতিক চাপে ভারত

বিবিসি একাত্তর ডেস্ক / ১৫৬ Time View
আপডেট : সোমবার, ৬ জুন, ২০২২

ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতাদের মহানবী সা.-কে নিয়ে কটূক্তির পর মুসলিম দেশগুলোর কাছ থেকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছে ভারত। কাতার, কুয়েত ও ইরান রোববার ভারতের দূতদের তলব করে তাদের প্রতিবাদ জ্ঞাপন করেছে। এছাড়া ওআইসি, সৌদি আরব, পাকিস্তান নিন্দা করেছে ভারতের। আর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দলটি এ প্রেক্ষাপটে দলের দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

সাম্প্রতিক এক টেলিভিশন বিতর্কে মহানবী সা.-কে নিয়ে কটূক্তি করায় বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র নুপুর শর্মাকে রোববার দলের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে। আর বিজেপির দিল্লি মিডিয়া অপারেশন প্রধান নবীন কুমার জিন্দালকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে দলটি জানিয়েছে।

জানা গেছে, নুপুর শর্মা গত সপ্তাহে এক টিভি বিতর্কে মহানবী সা. ও তার স্ত্রী আয়েশা রা. সম্পর্কে অপমানসূচক মন্তব্য করেন। এই বিতর্ক নিয়ে তীব্র প্রতবাদের মুখে নুপুরের সহকর্মী জিন্দাল টুইটারে মহানবী সা. সম্পর্কে আরো কিছু কটূক্তি করেন। এতে ক্ষোভ আরো বাড়ে। ওই টুইটার পোস্টটি এখন সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

তাদের এই মন্তব্যের পর ভারতীয় এক রাজ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়, নুপুরকে গ্রেফতারের দাবি ওঠে।

রোববার কুয়েত ও কাতারের ভারতীয় রাষ্ট্রদূতদের তলব করে ওই মন্তব্যের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিবাদ জানানো হয়। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ‘অত্যন্ত আপত্তিকর মন্তব্য’ এবং বিজেপির প্রতিক্রিয়ার নিন্দা করে।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের বিবৃতিতে বলে, এসব সম্পূর্ণ অগ্রহণযোগ্য মন্তব্য কেবল পাকিস্তানের নয়, সারা দুনিয়ার কোটি কোটি মুসলিমকে আহত করেছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফও বিজেপি নেত্রীর মন্তব্যের নিন্দা করেন। ইসলামি সহযোগিতা সংস্থাও (ওআইসি) এ ঘটনায় ভারতের নিন্দা করেছে। সৌদি আরবও বিজেপি মুখপাত্রের ‘অপমানসূচক’ মন্তব্যের নিন্দা করেছে। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে ‘সব বিশ্বাস ও ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন’ করার আহ্বান জানিয়েছে।

আন্তর্জাতিক মূল্য দিতে হবে
দিল্লিভিত্তিক সাংবাদিক সাবা নকভি আলজাজিরাকে বলেন, বিজেপি ইতোপূর্বে ভারতে মুসলিমদের বিরুদ্ধে উত্তেজনা সৃষ্টি করে রাজনৈতিকভাবে লাভবান হয়েছে।

নকভি বলেন, ‘কিন্তু এবার তাদেরকে আন্তর্জাতিক মূল্য দিতে হবে।’
তিনি বলেন, ভারতে বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম মুসলিম জনগোষ্ঠী রয়েছে। ফলে এই ঘটনা বিশ্ব জেনে গেছে।

সূত্র : আলজাজিরা ও ডন

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো ক্যাটাগরি