• শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৫১ পূর্বাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
খুটাখালীতে তমিজিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বাড়ীতে দুর্ধর্ষ চুরি সাফারী পার্কের সিংহ রাসেলের অকাল মৃত্যূ বিপ্লব ঘটবে অর্থনীতিতে! তাপবিদ্যুৎ কাজের অগ্রগতি ৭৫ শতাংশ – হচ্ছে সমুদ্রবন্দর ও রেললাইন! ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে বিজয়ী হলেন জাতীয় পার্টির হাফিজউদ্দীন আহমেদ চকরিয়া ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলা ভাংচুর ও মারধর, আহত-৫ টেকনাফ মৌচনী ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নুর নাহার এখন বাংলাদেশী পেকুয়ায় কর্মজীবির জায়গায় রাতেই স্থাপনা নির্মাণ পেকুয়ায় দরবার সড়কের বেহাল দশায় চরম দুর্ভোগ! ফাঁসিয়াখালীতে সামাজিক বনায়নের গাছ কর্তনে পাচারকালে জব্দ চকরিয়ায় প্রতিবন্ধির বসতভিটা কেড়ে নিতে প্রবাসী নুরুল আমিনের হুমকি

বৃষ্টি-বিঘ্নিত দিনে লিড নিলো অস্ট্রেলিয়া

বিবিসি একাত্তর ডেস্ক / ১১০ Time View
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন, ২০২২

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গল টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে এগিয়ে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া। ২ উইকেট হাতে নিয়ে ১০১ রানে এগিয়ে অসিরা। প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার ২১২ রানের জবাবে নিজেদের ইনিংসে দ্বিতীয় দিন শেষে ৮ উইকেটে ৩১৩ রান করেছে অস্ট্রেলিয়া। গল-এ সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনই শ্রীলঙ্কাকে অলআউট করে ব্যাটিং শুরু করে অস্ট্রেলিয়া। প্রথম দিন শেষে ৩ উইকেটে ৯৮ রান করেছিল অসিরা। ওপেনার উসমান খাজা ৪৭ ও ট্রাভিস হেড ৬ রানে অপরাজিত ছিলেন।

অতিবৃষ্টি ও ঝড়ের কারনে দ্বিতীয় দিন নির্ধারিত সময়ে খেলা শুরু হতে পারেনি। শুরু হতে দুপুর গড়িয়ে যায়। দুপুরের দিকে খেলা শুরু হলে দিনের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই ৫ রানে অপরাজিত থাকা হেডের বিদায় নিশ্চিত করেন ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা।

দিনের চতুর্থ ওভারে টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৭তম হাফ-সেঞ্চুরির স্বাদ নেন খাজা। হেডের বিদায়ের পর ক্যামেরন গ্রিনের সাথে পঞ্চম উইকেটে ৫৭ রান যোগ করেন খাজা।
দলীয় ১৫৭ রানে খাজাকে বিদায় করেন শ্রীলঙ্কার লেগ-স্পিনার জেফরি বন্দরসে। ৭টি চারে ১৩০ বলে ৭১ রান করেন খাজা। এরপর ক্রিজে গ্রিনের সঙ্গী হন উইকেটরক্ষক অ্যালেক্স ক্যারি। ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাট করতে থাকেন তিনি। শ্রীলংকার বোলারদের উপর চড়াও হয়ে ৬টি চার আদায় করে নেন ক্যারি। রান তোলায় আগাসী ছিলেন গ্রিনও। ৫৫তম ওভারের প্রথম বলে বাউন্ডারি দিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের পঞ্চম হাফ-সেঞ্চুরির দেখা পান গ্রিন।

হাফ-সেঞ্চুরির কাছাকাছি গিয়ে থামতে হয় ক্যারিকে। মিড-অফে ক্যারির দুর্দান্ত ক্যাচ নেন দিনেশ চান্ডিমাল। স্পিনার রমেশ মেন্ডিসের শিকার হয়ে ৪৫ রানে আউট হন ক্যারি। ৪৭ বল খেলে ৬টি চার মারেন তিনি। গ্রিনের সাথে ৯৩ বলে ৮৪ রান যোগ করেছিলেন ক্যারি। আর জুটির কল্যাণেই লিড নেয় অস্ট্রেলিয়া।
এরপর সপ্তম উইকেটে মিচেল স্টার্কের সাথে জুটি বেঁধে ৩৭ রান যোগ করে অস্ট্রেলিয়ার লিড বাড়ান গ্রিন। গ্রিনকে ৭৭ রানে থামিয়ে দেন মেন্ডিস। ১০৮ বল খেলে ৬টি চার মারেন গ্রিন।

গ্রিন ফেরার ২ বল পর অস্ট্রেলিয়ার অষ্টম ব্যাটার হিসেবে প্যাভিলিয়নে ফিরেন স্টার্কও। ১০ রান করেন তিনি। তবে নবম উইকেটে নাথান লায়নকে নিয়ে মারমুখী হতে উঠেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। বন্দরসের করা ৬৭তম ওভারে ১টি ছক্কা এবং ৬৯তম ওভারে ২টি ছক্কা ও ১টি চার মারেন কামিন্স। ফলে অস্ট্রেলিয়ার লিড তিন অঙ্কে পৌঁছায়।
৬৯তম ওভার শেষে আলো-স্বল্পতার কারণে দিনের খেলার ইতি ঘটে। ১টি চার ও ৩টি ছক্কায় ১৬ বলে ২৬ রানে অপরাজিত আছেন কামিন্স। ১৩ বলে ৮ রানে অপরাজিত লায়ন। নবম উইকেটে ২৮ বলে অবিচ্ছিন্ন ৩৫ রান করেছেন কামিন্স ও লায়ন। এরমধ্যে ১৫ বলে ২৬ রানই কামিন্সের।

শ্রীলঙ্কা রমেশ ১০৭ রানে ৪ উইকেট নেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো ক্যাটাগরি