• শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৩৩ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
খুটাখালীতে তমিজিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বাড়ীতে দুর্ধর্ষ চুরি সাফারী পার্কের সিংহ রাসেলের অকাল মৃত্যূ বিপ্লব ঘটবে অর্থনীতিতে! তাপবিদ্যুৎ কাজের অগ্রগতি ৭৫ শতাংশ – হচ্ছে সমুদ্রবন্দর ও রেললাইন! ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে বিজয়ী হলেন জাতীয় পার্টির হাফিজউদ্দীন আহমেদ চকরিয়া ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলা ভাংচুর ও মারধর, আহত-৫ টেকনাফ মৌচনী ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নুর নাহার এখন বাংলাদেশী পেকুয়ায় কর্মজীবির জায়গায় রাতেই স্থাপনা নির্মাণ পেকুয়ায় দরবার সড়কের বেহাল দশায় চরম দুর্ভোগ! ফাঁসিয়াখালীতে সামাজিক বনায়নের গাছ কর্তনে পাচারকালে জব্দ চকরিয়ায় প্রতিবন্ধির বসতভিটা কেড়ে নিতে প্রবাসী নুরুল আমিনের হুমকি

বিনামূল্যে ভ্যাকসিনের দোকান খুলে বসে আছি ক্রেতা নাই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা / ১০৬ Time View
আপডেট : শনিবার, ২৩ জুলাই, ২০২২

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন বলেছেন, `আমরা দোকান খুলে বসে আছি, যে দোকান থেকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেয়া হয়। কিন্তু ক্রেতা নেই, ক্রেতা সেভাবে আসে না। ফ্রি ভ্যাকসিন দিচ্ছি। আরবের অনেক দেশ আছে যারা ফ্রি ভ্যকসিন দিচ্ছে না। ওমান এত ধনী রাষ্ট্র তারাও ফ্রি ভ্যাকসিন দিচ্ছে না। আর আমরা ভ্যাকসিনের দোকান খুলে বসে আছি ক্রেতা আসে না।’

শনিবার দুপুরে মানিকগঞ্জ কর্নেল মালেক মেডিক্যাল কলেজে ইন্টার্ন সার্জারি চিকিৎসকদের ব্যাসিক সার্জিকাল স্কিল দক্ষতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, শূন্যের কোঠায় মৃত্যু নেমে এসেছিল। এরপরও দেখি দু’, পাঁচ, ১০ জন করে ফের মৃত্যু হচ্ছে। আমরা একটি হিসাব করে বের করেছি তাতে দেখা গেল, যারা মৃত্যুবরণ করছে তারা বেশিরভাগই ভ্যাকসিন ছাড়া। যারা ভ্যাকসিন নেয় নাই ওই সকল লোকের মৃত্যু হচ্ছে। আমরা তো মৃত্যু কামনা করি না। আমরা ভ্যাকসিন নিয়ে বসে আছি অথচ লোকে ভ্যাকসিন নিতে এগিয়ে আসে না খুবই দুঃখ জনক।

বাংলাদেশে বড় দু’টি অক্সিজেন লিকুইড প্ল্যান্ট স্থাপিত হবে জানিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশের এখন প্রতিদিন ২০০ টন অক্সিজেনের প্রয়োজন। আমরা দু’টা প্ল্যান্ট বসাচ্ছি তার সক্ষমতা হবে ৪০০ টন। এক-একটা প্ল্যান্ট তৈরিতে সরকারের কয়েক শ’ কোটি টাকা ব্যায় হবে। সেই একটি প্ল্যান্ট মানিকগঞ্জে স্থাপিত হবে। অন্যটি হবে উত্তরবঙ্গে এমনটিই জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

চিকিৎসাখাতের সক্ষমতা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, কোয়ানটিটি আমাদের আছে আমরা কোয়ালিটিতে জোর দিচ্ছে। অনেক হাসপাতাল হয়েছে, বেড আছে ৬০ হাজার। আমরা সম্প্রতি সময়ে ডাক্তার নিয়োগ দিয়েছি ১৫ হাজার, নার্স নিয়োগ দেয়া হয়েছ প্রায় ২০ হাজার। সবকিছু দ্বিগুণ করা হয়েছে। এখন আমরা কোয়ালিটি নিশ্চিতে চেষ্ট করছি।

নিজেকে ভালো রাখা, পরিবারকে ভালো রাখা ও দেশকে ভালো রাখতে সকলকে দ্রুত ভ্যাকসিন নেয়ার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

এ সময় স্বাস্থ্য বিভাগের জিজি আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, জেলা প্রসাসক মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ, পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খান, কর্নেল মালেক মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ জাকির হোসেন, সিভিল সার্জন ডা. মোয়াজ্জেম আলী খান, কর্নেল মালেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক আরশ্বাদ উল্লাহ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম, পৌর মেয়র রমজান আলী, ডায়বেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সুদেব কুমার সাহা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো ক্যাটাগরি