• সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:২৮ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে বজ্রপাতে দুই কৃষকের মৃত্যু যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর উদ্দেগে ব্লাড গ্রুপ ও মেডিকেল ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠান কালীগঞ্জে সাব-ইজারাদারের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীর অভিযোগ  “মায়ের দাবী শ্বাসরোধে হত্যা” চকরিয়ায় এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার পঞ্চগড়ের বোদায় নৌকা ডুবিতে ২৪ জনের মৃত্যু ঈশ্বরদীতে বিএনপি’র নেতা আকরাম আলী খান সঞ্জুর প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী পালন ঝিনাইদহ জেলা পরিষদের নির্বাচন সলড়াই জমে উঠেছে কোটচাঁদপুরে যুবদলের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ ঝিনাইদহে প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু নিয়ে ধুম্রজাল সাপের কামড়ে মৃত্যু বলে প্রচার সিংড়ায় ক্যাবল অপারেটরের সংবাদ সম্মেলন

ঝিনাইদহে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমি দখল

ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি / ৩৩ Time View
আপডেট : শনিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২

আদালতের নির্দেশ অমান্য করে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ফুরসন্ধি ইউনিয়নের মিয়াকুন্ডু গ্রামে জোরপূর্বক জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় জমির মালিক মওলা বক্স প্রতিকার দাবী করেছেন। তথ্য নিয়ে জানা গেছে, মিয়াকুন্ডু বাজারে পাশে মওলা বকসের প্রায় ৯ বিঘা জমি রয়েছে। ভুলক্রমে উক্ত জমি আরএস রেকর্ড হয়ে যায় মৃত আসাদুর রহমানের ওয়ারিশগণের নামে।

পরবর্তীতে মওলা বকসের ওয়ারিশগণ রেকর্ড সংশোধনী মামলা করেন। মামলায় ঝিনাইদহ সদর সিনিয়র সহকারি জজ আদালত উভয় পক্ষকে জমিতে যেতে নিষেধ করেন। আদালতের স্থিতিশীল আদেশের পরও আসাদুজ্জামানের ওয়ারিশগণ আইন ভঙ্গ করে জোরপূর্বক জমি দখল করে জমিতে গড়ে তুলেছেন পাকা ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান। অথচ তারা কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনা। জোরপূর্বক জমি দখলের বিষয়ে মওলা বকসের সন্তানেরা অভিযোগ করেন, পারিবারিক সম্পত্তি হওয়া সত্তেও ভুল রেকর্ডের সুত্র ধরে শাহজালাল ব্যাংকের কর্মকর্তা আসাদুর রহমানের ছেলে মেহেদী হাসান জমি দখল করে স্থাপনা গড়ে তুলেছেন। মওলা বকসের ছেলে ওলিয়ার রহমান অভিযোগ করেন, মেহেদীর পিতা একসময় নিষিদ্ধ পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টির নেতা ছিলেন। তিনি পুলিশের সঙ্গে ক্রসফায়ানে নিহত হন। পিতার দাপটে সন্তান মেহেদী মওলা বক্সের ওয়ারশিদের ভিটেছাড়া করেছে। কোর্টের নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে স্থানীয় নারিকেলবাড়িয়া পুলিশ ক্যাস্প কোন ভুমিকা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ। জমি দখলের অভিযোগের বিষয়ে মেহেদী হাসানের কাছে জানতে চাইলে তিনি জনান, পিতা ও চাচারা এই জমি প্রায় ৭০ বছর ধরে ভোগদখল করে আসছে। এই জমির সকল খাজনা আমরা পরিশোধ করি। আমরাই এই জমির মালিক। এবিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জোরপূর্বক জমি দখল রাখার কোন সুযোগ নেই। ্য আদালত যে আদেশ দিয়েছেন তা উভয় পক্ষকে মেনে নিতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো ক্যাটাগরি