• শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]
শিরোনাম
খুটাখালীতে তমিজিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বাড়ীতে দুর্ধর্ষ চুরি সাফারী পার্কের সিংহ রাসেলের অকাল মৃত্যূ বিপ্লব ঘটবে অর্থনীতিতে! তাপবিদ্যুৎ কাজের অগ্রগতি ৭৫ শতাংশ – হচ্ছে সমুদ্রবন্দর ও রেললাইন! ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে বিজয়ী হলেন জাতীয় পার্টির হাফিজউদ্দীন আহমেদ চকরিয়া ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে হামলা ভাংচুর ও মারধর, আহত-৫ টেকনাফ মৌচনী ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নুর নাহার এখন বাংলাদেশী পেকুয়ায় কর্মজীবির জায়গায় রাতেই স্থাপনা নির্মাণ পেকুয়ায় দরবার সড়কের বেহাল দশায় চরম দুর্ভোগ! ফাঁসিয়াখালীতে সামাজিক বনায়নের গাছ কর্তনে পাচারকালে জব্দ চকরিয়ায় প্রতিবন্ধির বসতভিটা কেড়ে নিতে প্রবাসী নুরুল আমিনের হুমকি

বিজয় দিবস থেকে ৩ শ কিলোমিটার পথ হাটার উদ্যোগ নিয়েছেন বীরমুক্তিযোদ্ধা বিমল পাল

দিলীপ কুমার দাস ময়মনসিংহ / ৪০ Time View
আপডেট : বুধবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২২

ময়মনসিংহে ৩শ কিলোমিটার পথ হাঁটার উদ্যোগ নিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের গল্পের ফেরিওয়ালা বীর মুক্তিযোদ্ধা বিমল পাল। আগামী ১ ডিসেম্বর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পরবর্তী প্রজন্মের মাঝে উজ্জীবিত করতে সার্কিট হাউজ মুজিব চত্বরে বিজয় পদযাত্রার অনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে। পরে জেলার বিভিন্ন উপজেলা ঘুরে তিনশ কিলোমিটার পথযাত্রা শেষ করে একই স্থানে সমাপ্তি ঘোষনা করা হবে। মঙ্গলবার দুপুরে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে এ তথ্য জানান বীর মুক্তিযোদ্ধা বিমল পাল। বীর মুক্তিযোদ্বা বিমল পাল জানান, ২ ডিসেম্বর ভোর ৬টায় নগরীর টাউন হল থেকে ৩শ কিলোমটিার যাত্রা শুরু করবেন।
প্রথম দিনে মুক্তাগাছা উপজেলা হয়ে যাত্রারিতি শেষে ফুলবাড়িয়া উপজেলার উদ্দেশ্যে রওনা করবেন। এভাবে ত্রিশাল ভালুকা হয়ে গফরগাঁও যাবেন ৪ ডিসেম্বর। ৫ ডিসেম্বর গফরগাঁও থেকে যাত্রা শুরু করে দেওয়ানগঞ্জ হয়ে নান্দাইল উপজেলা সদরে রাত্রি যাপন করবেন। ৬ ডিসেম্বর ঈশ^রগঞ্জ হয়ে গৌরীপুর। পরদিন ৮ ডিসেম্বর নেত্রকোনার শ্যামগঞ্জ হয়ে পূর্বধলায় রাত্রি যাপন শেষে ভোরে চেচুঁয়া বিল হয়ে ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় উপস্থিতি এবং সেখানে রাত্রি যাপন। ৯ ডিসেম্বর ভোরে রওনা করে হালুয়াঘাটে উপস্থিতি ও রাত্রি যাপন।
সেখান থেকে ১০ ডিসেম্বর ভোর ৪টায় যাত্রা শুরু করে ফুলপুর উপজেলা হয়ে তারাকান্দা উপজেলা যাত্রা বিরতি। সেখান থেকে রওনা দিয়ে বিকাল ৪টায় ময়মনসিংহ নগরীর পাটগুদাম চায়না ব্রীজ সংলগ্ন জয় বাংলা চত্বরে উপস্থিতি। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে নগরীর জিরো পয়েন্ট হয়ে টাউন হল-সার্কিট হাউজ সংলগ্ন মুজিব চত্বরে সমাপনী অনুষ্ঠান।
মুক্তিযোদ্ধার বিজয় পদযাত্রা সমন্বয় কমিটির আয়োজনে হাটা কর্মসুচিতে সহযোগিতা করবেন, সংশ্লিষ্ট থানা ও উপজেলা প্রশাসন, ক্লিন আপ বাংলাদেশ, ব্রহ্মপুত্র ব্লাড কল্যাণ সোসাইটি, ময়মনসিংহ সিটি সাইক্লিস্ট, হেল্পপ্লাস ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড।
সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন- মুক্তিযোদ্বা বিমল পাল, শংকর সাহা, ইয়াজদানী কোরায়শী কাজল এবং পদযাত্রা সমন্বয় কমিটির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মতিউর রহমান ফয়সাল। উল্লেখ্য, এর আগে বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তিতে হালুয়াঘাট থেকে ময়মনসিংহ পর্যন্ত ৫০ কিলোমিটার হেঁটেছিলেন। এছাড়াও একুশে পদকপ্রাপ্ত ময়মনসিংহের তিন গুণী ব্যক্তির সম্মানে পায়ে হেটে তাদের বাড়ী পরির্দশনে যান বীর মুক্তিযোদ্ধা বিমল পাল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো ক্যাটাগরি