• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম
চকরিয়ায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ যুবক নিহত মোংলায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষার লক্ষ্যে সম্প্রীতির বন্ধন ও সমাবেশ সিংড়ায় ইঁদুর নিধন অভিযান শুরু চকরিয়ায় অন্বেষণ সোস্যাল এন্ড ব্লাড ডোনার’স সোসাইটি’র বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ক্যাম্পেইন সম্পন্ন ঠাকুরগাঁও রানীশংকৈলে শেখ রাসেলের জন্ম দিবস পালিত পেকুয়ায় পুঁজামন্ডপ হামলার ঘটনায় তিন মামলায় আসামি ১-হাজার, গ্রেপ্তার-১৩ সিংড়ায় শেখ রাসেলের ৫৮ তম জন্মদিন পালন চকরিয়া পশ্চিম বড় ভেওলায় বহিষ্কৃত বিদ্রোহী প্রার্থী নৌকা প্রতীক পেতে মরিয়া চকরিয়া ও পেকুয়ায় ১৬ ইউনিয়নে নৌকা চাইলেন ৭০ জন পেকুয়ায় বিদ্যুতষ্পৃষ্টে দর্জির মৃত্যু

ভালবাসা দিবসে, ভোটারদের ভালোবাসায়- কে হচ্ছেন রাণীশংকৈলের পৌর পিতা ?

বিজয় রায় ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি / ২৮৮ Time View
Update : শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারী। এ নিয়ে শহর জুড়ে চলছে জল্পনা- কল্পনা। ভালবাসার দিনে ভালোবাসা দিবসে ভোটারদের ভালোবাসার বন্ধনে কে হচ্ছেন রাণীশংকৈলের পৌর পিতা?  ইতিমধ্যে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করেছেন প্রার্থীরা। দিয়েছেন নানা প্রতিশ্রুতি।
আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে শেষ হয়েছে। শনিবার নির্বাচন কমিশনের সম্পূর্ণ হবে ভোট নেওয়ার বুথ তৈরিসহ নানা প্রয়োজনীয় কাজ। আজ  দিনশেষ হলেই  বাকি থাকবে শুধু রবিবার (১৪ফ্রেরুয়ারী) ভালবাসা দিবসের দিনে ভোট অনুষ্ঠিত হওয়ার আনুষ্ঠানিকা ।
 সরেজমিনে দেখা গেছে- প্রচারণা শেষ হলেও প্রার্থীরা বিভিন্ন ভাবে এখনো ভোটারদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করার চেষ্টা করছেন।
এই পৌরসভা নির্বাচনে ১২ জন প্রার্থী মেয়র পদে লড়ছেন। দলীয় ভাবে আওয়ামী লীগ মনোনীত মোস্তাফিজুর রহমান, বিএনপি মনোনীত মাহামুদুল নবী পান্না বিশ্বাস ও জাতীয় পার্টির মনোনীত  আলমীগর হোসেন নির্বাচনে লড়ছেন।
এদিকে, নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের ফেক্টর হয়ে দাঁড়িয়েছেন আ’লীগের বিদ্রোহীসহ স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।
৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন, সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ১৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
মেয়র পদে অন্য প্রার্থীদের মধ্যে আ’লীগের বিদ্রোহী হিসেবে ভোটের প্রচারণা জোরে সোরে চালিয়ে যাচ্ছেন, বর্তমান মেয়র ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি (বহিষ্কৃত) আলমগীর সরকার (ক্যারাম বোর্ড), পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক (বহিষ্কৃত) রফিউল ইসলাম ভিপি (কম্পিউটার), সাবেক ছাত্রনেতা আ ফ ম রুকুনুল ইসলাম ডলার (রেল ইঞ্জিন), উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি (বহিষ্কৃত) নওরোজ কাউসার কানন (চামচ), সাবেক ছাত্রনেতা সাধন বসাক (নারিকেল গাছ), উপজেলা যুবলীগের অর্থ দপ্তর সম্পাদক (বহিষ্কৃত) আব্দুল খালেক (জগ) প্রতীকে লড়ছেন।
অপরদিকে, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোকাররম হোসাইন (ইস্ত্রি) প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। তবে দু’জন প্রার্থী মোখলেসুর রহমান (হ্যাঙ্গার) ও আ’লীগ নেতা ইসতেখার আলী (মোবাইল ফোন) প্রতীক পেয়েও নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন না।
উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, রাণীশংকৈল পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১৪ হাজার ৭০২ জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ৭ হাজার ৩১২ জন ও পুরুষ ভোটার ৭ হাজার ৩৯০ জন।
স্থানীয়রা বলছেন, যিনি পৌরসভার উন্নয়নে কাজ করবে এমন প্রার্থীকে ভোট দিয়ে এবার বেছে নেওয়া হবে। হিমেল হাওয়া আর কনকনে ঠান্ডায় ছুটে চলেছেন মেয়রসহ কাউন্সিলর প্রার্থীরা তাদের জয়ী হওয়ার লক্ষে । আর দিয়ে যাচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। তবে বড় দুই দলের মেয়র প্রার্থীদের সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থীদের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে মনে করছেন অনেক ভোটার।
পৌর শহরের ৯ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. আবু বলেন, ‘গত ৫ বছরে আলমগীর সরকার মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও পৌর শহরের দৃশ্যমান তেমন কোন উন্নয়ন হয়নি বিধায় তিনি এবার মনোনয়ন পাননি। রাস্তাঘাট জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে আছে, খানা খন্দকে ভরে গেছে। অধিকাংশ রাস্তায় বৈদ্যুতিক বাতি না থাকায়, সন্ধ্যার পরই সৃষ্টি হয় ভূতুরে অবস্থা!
একই কথা বলেন ৮ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবু মিলন সহ অনেকে।
গাড়িচালক নুরু ও শরিফ হোসেন বলেন, এমন প্রার্থীকে ভোট দেয়া উচিৎ যার দ্বারা পৌরসভার রাস্তাঘাটের উন্নয়ন হবে।
আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘আমি নির্বাচিত হলে মাদকমুক্ত পৌরসভা গড়ে তুলবো। রাস্তাঘাটের দ্রুত সংস্কার করবো। সবুজ বনায়নে আধুনিক পৌরসভা গড়ে তুলবো।’
বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মাহামুদুল নবী পান্না বলেন, ‘পৌরসভা গঠন হওয়ার পর থেকে ১২ বছরে কোন উন্নয়ন হয়নি। আমি নির্বাচিত হলে রাস্তাঘাট সহ ড্রেনেজ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন ঘটাবো।
বর্তমান মেয়র আলমগীর সরকার বলেন, ‘গত ৫ বছরে পৌর শহরের অনেক উন্নয়ন করেছি। এই কথা ভেবে পৌরবাসী আমাকে ভোট দেবে।’
স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল খালেক বলেন, ‘আমি নির্বাচিত হলে পৌরসভাকে আধুনিক পৌরসভা হিসেবে গড়ে তুলবো। বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে দলমত নির্বিশেষে পৌরবাসীর সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখবো।’
স্বতন্ত্র প্রার্থী সাধন বসাক বলেন, ‘আমি নির্বাচিত হলে পৌরসভাকে মাদকমুক্ত করবো। দুর্নীতিমুক্ত পৌরসভা গড়ে তুলবো।’
জাপা মনোনীত মেয়র আলমগীর হোসেন বলেন, ‘আমি নির্বাচিত হলে পৌরবাসীর চাহিদা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সকল সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা হবে।’
স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মোকাররম হোসাইন বলেন, ‘সুপরিকল্পিত পরিকল্পনা নিয়ে পৌরসভার মান উন্নয়নে কাজ করবো এবং পৌরসভাকে জবাবদিহিতামূলক পৌরসভায় রুপান্তরিত করবো।’
স্বতন্ত্র প্রার্থী নওরোজ কাউসার বলেন, ‘ওয়ার্ডভিত্তিক পৌরসভার মান উন্নয়নে গুরুত্ব দেব।’
রুকুনুল ইসলাম ডলার বলেন, ‘বাসযোগ্য যানজটমুক্ত আধুনিক পৌরসভা গঠন করবো।’
রফিউল ইসলাম বলেন আমি নির্বাচিত হলে সকলের সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে পৌরসভার সকল উন্নয়নমূলক কাজ করব।
উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আঁখি সরকার বলেন, ‘ভোট হবে অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ ভাবে । ভোটে কোন ধরনের অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না।’ভোট গ্রহনের সকল প্রস্তুতি সমপন্ন করা করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category